হাটহাজারীতে দুই শিশুকে জিম্মি করে মাকে গনধর্ষণ, আটক ১

0
27

নিউজ ডেস্ক : হাটহাজারীর প্রত্যন্ত এক অঞ্চলে দুই সন্তানকে গলায় ছুরি ধরে মেরে ফেলার ভয় লাগিয়ে মাকে পালাক্রমে ধর্ষন করে তিন লম্পট। গত ১৭ মে বুধবার দিবাগত রাতে লোহমর্ষক ঘটনাটি ঘটে। এ ব্যাপারে ধর্ষিতা বাদী হয়ে হাটহাজারী মডেল থানায় মামলা দায়ের করে।
মামলা সূত্রে জানা যায়, জনৈক কায়সারের মুরগী ফার্মে দীর্ঘদিন ধরে চাকুরীরত আছে জনৈক ব্যাক্তি, মুরগী ফার্মের সেমিপাকা একটি ঘরেই স্ত্রী ও দুই শিশু সন্তান নিয়ে বসবাস করেন, পাশাপাশি পাশের একটি নির্মানাধীন বিল্ডিংয়ে নাইট গার্ডের চাকরী করেন, ঘটনার দিন রাতে স্ত্রী সন্তানদের ঘুমের ব্যাবস্থা করে রাতের কর্মস্থলে চলে যান।
রাতে সুযোগ পেয়ে ঘরের টিনের দরজা ভেঙ্গে তিন লম্পট কৌশলে দুই সন্তানের গলায় লম্বা ছুরি ঠেকিয়ে জানে মারার ভয় লাগিয়ে পালাক্রমে ধর্ষন করে ঐ মহিলাকে। ধর্ষন শেষে যাবার পর কাউকে না বলার জন্যে শাষিয়ে যায় এবং মামলা কিংবা জানাজানি হলে সবাইকে জানে মেরে ফেলার হুমকী দিয়ে যায়, ভোরে ক্ষতিগ্রস্থ মা এলাকাবাসীকে ঘটনার বিস্তারিত জানালে এলাকাবাসী লম্পট ধর্ষক ফতেপুরের আলাউল দিঘির সড়ক মফজল মেম্বারের বাড়ির মৃত আব্দুল শুক্কুরের পূত্র মোঃ সোহেল (৩২) কে আটক করে গনধোলাই দেয়, পরে খবর পেয়ে হাটহাজারী থানার এস আই আরিফুজ্জামান অভিযুক্তকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।
এ বিষয়ে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক (ওসি অপারেশন) মো. কামাল উদ্দিন জানান, “ধর্ষিতা নিজে বাদী হয়ে ৩ জনের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেছেন। ধর্ষিতাকে মেডিকেল পরীক্ষার জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। ইতিমধ্যে ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে সোহেলকে আটক করে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। অন্যান্য আসামীদের আটক সর্বাত্বক চেষ্টা অব্যহত রয়েছে।
বাকী দুজনের নাম তদন্তে স্বার্থে গোপন রাখা হয়েছে

Comments

comments

LEAVE A REPLY