অযোধ্যায় রাম জন্মভূমি-বাবরি মসজিদ বিতর্কে ২০১০ সালের এলাহাবাদ হাইকোর্টের রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে বিভিন্ন পক্ষের পেশ করা দায়রা আবেদনের শুনানির দিন পিছিয়ে আগামী বছরের ৮ই ফেব্রুয়ারি ধার্য করেছে সুপ্রিম কোর্ট। প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্র, বিচারপতি অশোক ভূষণ ও বিচারপতি এস এ নাজিবকে নিয়ে গঠিত সুপ্রিম কোর্টের বেঞ্চ সব পক্ষের আইনজীবীদের নিজেদের মধ্যে সৌহার্দ্য বজায় রেখে একসঙ্গে বসে যাবতীয় প্রয়োজনীয় নথিপত্র অনুবাদ করে যাতে শীর্ষ আদালতের রেজিস্ট্রির কাছে ক্রমানুসারে সাজিয়ে পেশ করা হয়, তা সুনিশ্চিত করতে বলেছে। এতে কোনও সমস্যা হলে তাদের রেজিস্ট্রির সঙ্গে পরামর্শ করতে বলা হয়েছে। এদিন মামলার একটি পক্ষ, সুন্নি ওয়াকফ বোর্ডের আইনজীবী কপিল সিব্বল জানান, মন্দির-মসজিদ মামলায় বিতর্কিত জমির মালিকানা সংক্রান্ত বেশ কিছু সাক্ষী, নথি পেশ করা হয় নি আদালতে। বর্তমান পরিস্থিতির প্রেক্ষাপটে তিনি শুনানি ২০১৯ এর লোকসভা ভোট পর্যন্ত পিছনোর আবেদন করেন। তার বক্তব্য, এখন যা পরিস্থিতি, তাতে মামলার শুনানি করে আদালত যে রায়-ই দিক, তার ব্যাপক রাজনৈতিক, সামাজিক প্রতিক্রিয়া হতে পারে।

তাই লোকসভা নির্বাচন পর্ব মিটে যাওয়ার পর শুনানি হোক। কিন্তু তার আবেদন নাকচ করে দেয় বেঞ্চ। এলাহাবাদ হাইকোর্ট বিতর্কিত জমিটি ২ঃ১ সংখ্যাগরিষ্ঠতার ভিত্তিতে তিন পক্ষ সুন্নি ওয়াকফ বোর্ড, নির্মোহী আখাড়া ও রাম লালার মধ্যে ভাগ করে দিতে বলে। সেই নির্দেশের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে মোট ১৩টি আবেদন পেশ  হয়েছে। তারই শুনানি চালাতে সর্বোচ্চ আদালতের বিশেষ বেঞ্চ গঠন করা হয়েছে।

Comments

comments

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

4 × 3 =