রাশিয়া নিজেদের ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষাব্যবস্থার আধুনিক সংস্করণের সফল পরীক্ষা চালিয়েছে। কাজাখস্তান থেকে উৎক্ষেপণ করা এই অ্যান্টি-ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র রাজধানী মস্কোর আকাশ সুরক্ষার কাজে ব্যবহার করা হবে।
রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়, গতকাল বৃহস্পতিবার কাজাখস্তানের স্যারি শাগান অঞ্চল থেকে নতুন অ্যান্টি-ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ করা হয়। তবে এই ক্ষেপণাস্ত্রের কার্যকারিতা ও গঠন বৈশিষ্ট্য কেমন, এ বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানানো হয়নি।
রুশ গণমাধ্যম আরটির ইউটিউবে প্রকাশিত ভিডিওতে দেখা যায়, একটি ভারী ট্রাকে ক্ষেপণাস্ত্রটি বহন করে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। ওই বহরে আরও তিনটি গাড়ি দেখা যায়। পরে ক্ষেপণাস্ত্রটি উৎক্ষেপণস্থলে বসানো হয় এবং বিকট শব্দে তা বিস্ফোরিত হয়।
অ্যান্টি-ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রকে পুরোপুরি কর্মক্ষম প্রতিরক্ষাব্যবস্থা হিসেবে তৈরি করতে পেরেছে—হাতে গোনা এমন কয়েকটি দেশের মধ্যে একটি রাশিয়া। কয়েক বছর ধরে রাশিয়া ইউরোপে ন্যাটোর বিরুদ্ধে নিজেদের ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষাব্যবস্থার আধুনিকীকরণের কাজ করে আসছে। রাশিয়ায় এই প্রতিরক্ষাব্যবস্থা এ-১৩৫ নামে পরিচিত। মস্কো ও এর আশপাশের আকাশ সুরক্ষার কাজে এই প্রতিরক্ষাব্যবস্থা ব্যবহার করা হয় বলে মনে করা হয়।
রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, নতুন অ্যান্টি-ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থায় আগাম রাডার বার্তা পাওয়া ছাড়াও এতে বাইরের স্থান পর্যবেক্ষণের জন্যও ডিজাইন করা হয়েছে। বর্তমানে রুশ বিমানবাহিনীতে এই প্রযুক্তি ব্যবহার হচ্ছে। সূত্র: আরটি

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   ‘হিন্দু রাষ্ট্রে পরিণত করা হলে ভারত ধ্বংস হয়ে যাবে’

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

thirteen − twelve =