ভারতের বাজারে কমে গেছে পেঁয়াজের দাম। দেশটির সবচেয়ে বড় পাইকারি বাজার মহারাষ্ট্রের লাসালগাঁওয়ে প্রতি কেজি পেঁয়াজের দর নেমেছে সাড়ে ১৬ রুপিতে, বাংলাদেশি মুদ্রায় যা ২১ টাকার কিছু বেশি। নতুন এ দর এক মাস আগের তুলনায় ৫০ শতাংশ কম।

প্রতিবেশী দেশটিতে দাম কমে যাওয়ায় বাংলাদেশের বাজারেও স্বস্তি আসছে। পাইকারি বাজারে ভারতীয় ও দেশি পেঁয়াজের দাম কেজিপ্রতি ৪৫ টাকায় নেমেছে। পাইকারি বিক্রেতারা বলছেন, আগামী এক সপ্তাহে মূল্য আরও কমে যাওয়ার আশা আছে।

ঢাকার খুচরা বাজারে গতকাল বৃহস্পতিবার প্রতি কেজি দেশি ও ভারতীয় পেঁয়াজ ৫৫-৬৫ টাকায় বিক্রি হয়। গত সপ্তাহের তুলনায় এ দর ৫ থেকে ১০ টাকা কম। অবশ্য গত বছরের এ সময়ের তুলনায় দর অনেক বেশি। সরকারি সংস্থা ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) হিসাবে, গত বছর এ সময়ে পেঁয়াজের দর ছিল কেজিপ্রতি ১৮-২৫ টাকা।

খারাপ আবহাওয়ার কারণে বাংলাদেশ ও ভারতে পেঁয়াজের উৎপাদন ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় গত ঈদুল ফিতরের পর থেকেই নিত্যপ্রয়োজনীয় এ পণ্যের বাজার চড়া। ডিসেম্বরের শুরুতে দেশের বাজারে প্রতি কেজি দেশি পেঁয়াজের দর ১৪০ টাকা ও ভারতীয় পেঁয়াজ ৯০ টাকায় উঠেছিল। এরপর জানুয়ারির শুরুতে নতুন দেশি পেঁয়াজ বাজারে আসতে শুরু করে। প্রথম দিকে তা কেজিপ্রতি ৯০ টাকা, পরে ৭০-৮০ টাকার মধ্যে কেনাবেচা হয়। ভারতের বাজার নিয়ে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস-এর এক খবরে গতকাল বলা হয়, লাসালগাঁওয়ের ব্যবসায়ীরা দাম কমে যাওয়ায় রপ্তানিতে ন্যূনতম মূল্য কমানোর দাবি জানিয়েছেন। তাঁরা বলছেন, টনপ্রতি ৭০০ মার্কিন ডলার দরে পেঁয়াজ রপ্তানি সম্ভব হচ্ছে না। এ মূল্য শুরুতে ৮৫০ ডলার ছিল, যা ১০ জানুয়ারি ১৫০ ডলার কমানো হয়।

বাংলাদেশ পেঁয়াজ আমদানির ক্ষেত্রে ভারতের ওপর নির্ভরশীল। দেশে বছরে প্রায় ১৮ লাখ টন পেঁয়াজ উৎপাদিত হয়। আরও ১০ লাখ টন আমদানি হয়। জানতে চাইলে পুরান ঢাকার শ্যামবাজারের একজন পেঁয়াজ আমদানিকারক নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, ভারতে দর কমায় বাংলাদেশেও বাজার পড়তির দিকে। শ্যামবাজারে দেশি ও ভারতীয় দুই ধরনের পেঁয়াজই ৪৫-৪৬ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে।

আরও পড়ুনঃ   শেয়ারবাজারে কবে আসবে সরকারি ২৫ কোম্পানি -কার্যক্রম তদারকিতে ৫ সদস্যের কমিটি

এদিকে বাজারে সবজির দরও কমেছে। বিভিন্ন ধরনের সবজি প্রতি কেজি ৩০ থেকে ৫০ টাকার মধ্যে বিক্রি হচ্ছে বড় বাজারে, যা আগের সপ্তাহের তুলনায় কেজিতে ৫-১০ টাকা কম। অন্যান্য পণ্যের দামে বিশেষ কোনো হেরফের হয়নি।

Comments

comments

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

four × one =