এ বছর মে মাসে বলিউড তারকা সাগরিকাকে বিয়ের প্রস্তাব দেন ভারতের ক্রিকেট তারকা জহির খান। সাগরিকাও প্রেমিকের দেওয়া হিরার আংটি গ্রহণ করে সেই প্রস্তাবে সম্মতি জানান। সম্পর্ককে আনুষ্ঠানিক রূপ দেওয়ার আগে এই তারকা জুটি প্রেম করেছেন টানা দুই বছর। বলিউডের সঙ্গে ক্রিকেটারদের সখ্য নতুন নয়। তাই এ জগতের মানুষের মধ্যে ‘কমন ফ্রেন্ড’ও প্রচুর। এমন কিছু বন্ধুর মাধ্যমেই দুই জগতের দুই বাসিন্দা সাগরিকা ও জহিরের পরিচয় আর প্রেম, যা আজ পরিণতি পেয়েছে। গতকাল বুধবার পর্যন্তও জহির-সাগরিকা ছিলেন প্রেমিক-প্রেমিকা। আজ বৃহস্পতিবার সকাল থেকে তাঁরা হলেন স্বামী-স্ত্রী।

সাগরিকা ও জহিরের বিবাহোত্তর সংবর্ধনার নিমন্ত্রণপত্র ইন্টারনেটে ভাইরাল হওয়ার দুই দিন পরই এসেছে তাঁদের বিয়ের খবর। আজ সকালে মুম্বাইয়ে খুব ঘরোয়া পরিসরে এই জুটির রেজিস্ট্রি বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে। মালাবদল করার পর সদ্য বিবাহিত জুটির দুটি ছবি সাগরিকার এক বন্ধু ইনস্টাগ্রামে প্রকাশ করেন। ঘরোয়া এই বিয়ের আয়োজনে দুই পরিবারের কাছের মানুষ ছাড়াও ক্রিকেটজগতের জহিরের কয়েকজন ঘনিষ্ঠ সতীর্থর উপস্থিত থাকার কথা।


আজ সন্ধ্যায় বন্ধুদের নিয়ে জহির একটি পার্টির আয়োজন করেছেন। সাগরিকা আর জহির খানের মেহেদি অনুষ্ঠান হবে আগামী রোববার। আর জাঁকজমকপূর্ণভাবে বিবাহোত্তর অনুষ্ঠানের পরিকল্পনা করা হয়েছে পরদিন সোমবার।

‘চাক দে! ইন্ডিয়া’ ছবির তারকা সাগরিকা বিয়ের পর সংবাদমাধ্যমকে স্বামী জহির সম্পর্কে বলেন, ‘জহিরের জীবনে এত অর্জন থাকা সত্ত্বেও সে সবার সঙ্গে খুব সহজে মিশে যেতে পারে। মানুষটি স্বভাবে খুব বিনয়ী। আমি তাকে ভীষণ শ্রদ্ধা করি।’

আর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নিজেদের বাগদানের ছবি প্রকাশ করে জহির কী লিখেছিলেন মনে আছে? ভারতীয় এই ক্রিকেট তারকা বলেছিলেন, ‘নিজের স্ত্রীর পছন্দ নিয়ে রসিকতা করতে নেই; কারণ তিনি কিন্তু আপনাকেও বেছে নিয়েছেন। স্ত্রী জীবনের সঙ্গী।

এনডি টিভি

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   এই পার্কটিতে নারী পুরুষ নগ্ন হয়ে ঘুরে বেড়াতে পারবে

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

2 × 4 =