খরচ হয়েছিল মাত্র আট ডলার। কিন্তু, ফিরে পেলেন ২৬ হাজার মার্কিন ডলার! অবিশ্বাস্য শোনালেও এমনটাই ঘটেছে মার্কিন মুলুকে।

বনহ্যামস অকশন হাউজের নিউ ইয়র্ক শাখা জানিয়েছে, গত ১৯ সেপ্টেম্বর তাদের নিলামে ওঠে একটি ব্রোচ। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই ব্রোচের মালিক তা সাধারণ গয়না ভেবেই নিলামে এনেছিলেন। বহু বছর আগে গ্যারেজ সেল থেকে মাত্র আট ডলারে ওই ব্রোচটি কিনেছে তার মা। তিনিই তা মেয়েকে দিয়েছিলেন চার্চের অনুষ্ঠানে পরার জন্য। কিন্তু, মেয়ে তা ভুলে গিয়েছিলেন। মেয়ের হাতব্যাগেই তা পড়েছিল। এর বেশ কয়েক মাস পরে একটি গয়নার দোকানে গিয়ে তা পরীক্ষা করাতেই বেরিয়ে আসে, এটি মোটেও সস্তার গয়না নয়। বরং বেশ দামি।

অসংখ্য হীরা জড়ানো বিংশ শতাব্দীর ওই ব্রোচে রয়েছে একটি পান্না ও রুবি। এ ছাড়া, ১.৩৯ ক্যারাট ওজনের একটি বড়সড় মাইন-কাট হীরাও রয়েছে ওই ব্রোচে। শুধু কি তাই! ত্রিকোণ আকারের কলম্বিয়ার দেড় ক্যারেটের পান্না ছাড়াও আর রয়েছে একটি গোলাকার বার্মিজ রুবি। যার ওজন ০.৬০ ক্যারেট।

বনহ্যামস জানিয়েছে, ওই ব্রোচটি পরীক্ষা করেছেন জেমোলজিক্যাল ইনস্টিটিউট অব আমেরিকার বিশেষজ্ঞরা। তারাও এর মূল্য যাচাই করেছেন। নিলামে ওঠার পর বাংলাদেশী মুদ্রায় যার দাম ছাড়িয়েছে ২১ লক্ষেরও বেশি টাকায়!

আমেরিকায় বনহ্যামস নিলামঘরের তরফে সুজান অ্যাবেলেস বলেন, “কী অপূর্ব গল্প না! এর থেকেই বোঝা যায়, সব জায়গাতেই অমূল্য সম্পদ ছড়িয়ে রয়েছে।”

Comments

comments

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

fourteen − 4 =