আফগানিস্তানের ৭০ শতাংশ জায়গাজুড়ে সক্রিয় রয়েছে জঙ্গি গোষ্ঠী তালিবান। পাশাপাশি পুরো দেশের ৪ শতাংশ নিয়ন্ত্রন করা সহ ৬৬ শতাংশ জায়গায় শারীরিক উপস্থিতি রয়েছে দলটির। মঙ্গলবার বিবিসি’র এক সমীক্ষায় এ তথ্য উঠে এসেছে। দেশজুড়ে ভিন্ন ভিন্ন ১২০০ সূত্রের সঙ্গে কথা বলে এ সমীক্ষা করেছে বিবিসি। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।
খবরে বলা হয়, সম্প্রতি ন্যাটো-নেতৃত্বাধীন জোটও আফগানিস্তানে তালিবানের উপস্থিতি নিয়ে একটি সমীক্ষা করেছে।

তবে বিবসি’র সমীক্ষা ও জোটের সমীক্ষার মধ্যে ব্যাপক তফাৎ বিদ্যমান। মঙ্গলবার জোটের সমীক্ষা অনুযায়ী, গত অক্টোবর পর্যন্ত আফগানিস্তানজুড়ে তালিবানের উপস্থিতি বা নিয়ন্ত্রণ ছিল ৪৪ শতাংশজুড়ে। বিবিসি’র সমীক্ষায় আফগানিস্তানে জেলার সংখ্যা ধরা হয়েছে ৩০৯টি। আর ন্যাটো-জোতের সমীক্ষায় জেলা ধরা হয়েছে ৪০৭টি। দুই সমীক্ষায় এই গরমিলের কারণ সম্বন্ধে ¯পষ্টভাবে কিছু জানা যায়নি। বিবিসি’র মতে, আফগান সরকারের নিয়ন্ত্রনে রয়েছে ১২২ টি জেলা বা দেশের ৩০ শতাংশ। তবে সেগুলোতেও তালিবানরা হামলা চালিয়ে থাকে। সমীক্ষা প্রতিবেদনে বলা হয়, কাবুল ও অন্যান্য প্রধান শহরগুলোতে সংলগ্ন এলাকা থেকে বা ‘¯ি¬পার সেল’(সন্ত্রাসী সংগঠনের গোপন কর্মী যারা দীর্ঘ সময় ধরে নিষ্ক্রিয়) দ্বারা হামলা চালানো হয়েছে- এই গবেষণা শুরু করার আগে, গবেষণা চলার সময় ও শেষ হওয়ার পরেও।
আফগানিস্তান ১৬ বছর ধরে তালিবানদের বিরুদ্ধে লড়াই করছে। সম্প্রতি এক গাড়ি বোমা হামলায় ১০০’র বেশি মানুষ নিহত হওয়ার পর দেশটিতে বিরাজ করছে চরম অস্থিরতা। প্রণয়ন করা হয়েছে নতুন আগ্রাসী মার্কিন-সমর্থিত কৌশল। ওই হামলার এক সপ্তাহ আগে ওপর এক হামলায় নিহত হয়েছে ২০ জন।

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   ‘হিন্দু রাষ্ট্রে পরিণত করা হলে ভারত ধ্বংস হয়ে যাবে’

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

eight − three =