বিগত সময়ের তুলনায় বর্তমান সময়টাকে বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বাজে সময় আখ্যা দিলে ভুল হবে না। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সর্বশেষ ৬ ম্যাচ ধরে জয়হীন বাংলাদেশ, যেখানে ছিল তিনটি ওয়ানডে ও তিনটি টেস্ট।

টাইগাররা সর্বশেষ জয়ের দেখা পেয়েছিল অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে, ঐতিহাসিক ঢাকা টেস্টে। ঐ সিরিজেরই দ্বিতীয় ও শেষ টেস্টে চট্টগ্রামে সফরকারীদের কাছে হারতে হয় বাংলাদেশকে।

এরপর সফরকারীর ভূমিকায় আসে বাংলাদেশই, প্রতিপক্ষ হিসেবে সামনে যখন দক্ষিণ আফ্রিকার মতো পরাশক্তি। অচেনা কন্ডিশন আর মাঠের কারণে দক্ষিণ আফ্রিকা সফর কঠিন হবে- এটি ছিল অনুমেয়ই। তবে প্রোটিয়াদের বিপক্ষে বাংলাদেশের পারফরমেন্স বলছে, ‘কঠিন’ শব্দটা এই সিরিজে ‘একটু বেশি কঠিন’-এ রূপ নিয়েছে!

এই সফরে ঘুরে দাঁড়ানোর মন্ত্র কম গায়নি বাংলাদেশ। প্রথম টেস্টে হারের পর দ্বিতীয় টেস্টে ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যয় নিয়ে আরও হুড়মুড় করে ভেঙে পড়া। ওয়ানডে সিরিজের আগে মনোবল ভেঙে গেলো প্রস্তুতি ম্যাচে হেরেই। তবুও যতটুকু আত্মবিশ্বাস পুঁজি হিসেবে ছিল এই ফরম্যাটে টাইগারদের দক্ষতা বিচারে, তাও উধাও হয়ে গেলো নানাবিধ আলোচনা-সমালোচনা আর একের পর এক হারে। ফলে টেস্ট সিরিজের পর ওয়ানডে সিরিজেও স্বাগতিকদের কাছে হোয়াইটওয়াশ হতে হয়েছে বাংলাদেশকে।

তবে এবার আবারও ঘুরে দাঁড়ানোর সুযোগ বাংলাদেশের সামনে। দুই ম্যাচের টি-২০ ম্যাচ দিয়ে ইতি ঘটবে ঘটনাবহুল দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের। স্বভাবতই হারের বৃত্তে থাকা বাংলাদেশ চাইবে জয় দিয়ে সিরিজটাকে একটু হলেও স্মরণীয় ও বরণীয় করে রাখতে। তবে এক্ষেত্রে বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারে বিভিন্ন বিষয়। এর একটি দলের সেরা ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল ও সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা ভিন্ন ভিন্ন কারণে না থাকা। এছাড়াও দুশ্চিন্তার আরেক নাম হতে পারে ব্লুমফন্টেইন। এই মাঠেই যে বাংলাদেশ দ্বিতীয় টেস্ট হেরেছিল তিনদিনেরও কম সময়ে!

তবে পরিস্থিতি যাই হোক, বাংলাদেশ দল যে জয়ের জন্য মরিয়া হয়েই মাঠে নামবে- সে ব্যাপারে নেই কোনো সন্দেহ। অনিশ্চয়তার খেলা ক্রিকেটের বিধাতা এবার যদি একটু মুখ তুলে চান, হয়ত সাকিব আল হাসানের নেতৃত্বে জয়ের দেখা পাবে বাংলাদেশ!

উল্লেখ্য, ২৬ অক্টোবর বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত হবে বাংলাদেশ ও দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যকার দুই ম্যাচ টি-২০ সিরিজের প্রথম ম্যাচ, যা শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত দশটায়। ফ্লাডলাইটের নিচে অনুষ্ঠিতব্য এই ম্যাচটি সরাসরি সম্প্রচার করবে বিটিভি, জিটিভি ও মাছরাঙা টিভি।

দুই দলের সম্ভাব্য একাদশ-

দক্ষিণ আফ্রিকাঃ কুইন্টন ডি কক, হাশিম আমলা, এবি ডি ভিলিয়ার্স, জেপি ডুমিনি, ডেভিড মিলার/মাঙ্গালিসো মোসেলে, অ্যান্ডিলে ফেলুকায়ো, রবি ফ্রাইলিঙ্ক, ড্যান প্যাটারসন, বেউরান হেন্ড্রিক্স, অ্যারন ফাঙ্গিসো/তাবরাইজ শামসি

বাংলাদেশঃ ইমরুল কায়েস, সৌম্য সরকার, সাব্বির রহমান, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ, লিটন দাস/নাসির হোসেন, মেহেদী হাসান মিরাজ, মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন, শফিউল ইসলাম, রুবেল হোসেন। সূত্র: বিডিক্রিকটাইম।

Comments

comments

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

five − four =