ইকোনমিস্টের গণতন্ত্রের সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান নেমে গেছে। ইকোনমিস্ট ইনটেলিজেন্স ইউনিটের (ইআইইউ) বৈশ্বিক গণতন্ত্রের সূচক-২০১৭-এ বাংলাদেশের অবস্থান ৮ ধাপ পিছিয়েছে। গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র হিসেবে বাংলাদেশের স্কোরও ২০১৬ সালের তুলনায় কমেছে। ২০১৭ সালের সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান ৯২ তম এবং স্কোর ১০-এর মধ্যে ৫.৪৩। আর ২০১৬ সালে বাংলাদেশের অবস্থান ৮৪তম এবং এর স্কোর ৫.৭৩ ছিল।

লন্ডনভিত্তিক দ্য ইকোনমিস্ট গ্রুপের গবেষণা ও বিশ্লেষণ বিভাগ ইকোনমিস্ট ইনটেলিজেন্স ইউনিট বুধবার (৩১ জানুয়ারি) সূচকটি প্রকাশ করেছে। তালিকায় আবারো শীর্ষস্থানটি দখল করেছে নরওয়ে। আর মাত্র ১.০৮ স্কোর নিয়ে সূচকের একদম তলানিতে অবস্থান করছে উত্তর কোরিয়া। ১৬৭টি দেশ নিয়ে সূচকটি তৈরি করা হয়েছে। গণতন্ত্রের অবস্থা পর্যালোচনা করে দেশগুলোকে স্কোর দেয়া হয়েছে। সর্বোচ্চ স্কোর ১০। এর মধ্যে যাদের স্কোর ৮ তাদেরকে পূর্ণ গণতন্ত্রের দেশ বলে বিবেচনা করা হয়।

এবার সারা বিশ্বের সার্বিক গণতান্ত্রিক পরিস্থিতিরও অবনতি হয়েছে বলে জানিয়েছে ইকোনমিস্ট। ২০১৬ সালে ১০ স্কোরের মধ্যে সারাবিশ্বের গড় অর্জন ছিল ৫.৫২। কিন্তু এইবার সার্বিক গড় ৫.৪৮। ইকোনমিস্টের সূচকে সাতটি মহাদেশের মধ্যে এশিয়া সার্বিক সূচকে নিচের দিকে রয়েছে। ১০ পয়েন্টের মধ্যে এশিয়ার গড় অর্জন ৫.৬৩।

এতে বলা হয়, বিশ্বজুড়ে সংবাদপত্রের স্বাধীনতা ২০০৬ সালে ডেমোক্র্যাসি সূচক চালু হওয়ার পর থেকে সর্বনিম্ন অবস্থায় নেমে গেছে। উন্নত গণতান্ত্রিক দেশগুলোতে পর্যন্ত মতপ্রকাশের স্বাধীনতার ওপর বিধিনিষেধ একেবারে সাধারণ বিষয়ে পরিণত হয়েছে।
এতে বলা হয়, ২০১৭ সালে মাত্র ৩০টি দেশে মিডিয়ার পূর্ণ স্বাধীনতা ছিল। এসব দেশে বিশ্বের মোট জনসংখ্যার ১১ ভাগ বাস করে। আর ৪৭টি দেশে ৩৫.৯ ভাগ লোক যে পরিবেশে বাস করছে সেটাকে ওই প্রতিবেদেন ‌’স্বাধীনতাহীন’ হিসেবে অভিহিত করা হয়েছে।

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   হবিগঞ্জে পুলিশের সাথে বিএনপির সংঘর্ষে ২০ জন গুলিবিদ্ধসহ আহত ৫০

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

3 × 1 =