গত শনিবার হারিকেনে ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসনে তহবিল গঠনের লক্ষ্যে টেক্সাসে এক প্রচারণা অনুষ্ঠানে হাজির হয়েছিলেন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা, জর্জ ডব্লিউ বুশ, বিল ক্লিনটন, জর্জ বুশ এবং জিমি কার্টার।

সম্প্রতি হারিকেন হার্ভে, ইরমা ও মারিয়ার কারণে যুক্তরাষ্ট্রে জানমালের ভয়াবহ ক্ষতি সাধন হয়েছে। প্রাণ হারিয়েছে অন্তত ১০০ মানুষ।

গত সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হয় ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসনে তহবিল গঠনের প্রচারণা। বর্তমান প্রচারণাটির মাধ্যমে টেক্সাসে হারিকেন হার্ভের ক্ষতিগ্রস্তদের, ফ্লোরিডায় ইরমা আক্রান্তদের এবং পুয়ের্তো রিকো ও ভার্জিন আইল্যান্ডে মারিয়া আক্রান্তদের সহযোগিতা করা হবে। ইতিমধ্যে এ তহবিলে জমা হয়েছে ৩১ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের বেশি অর্থ।

অনুষ্ঠানে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের একটি ধারণকৃত ভাষণ প্রচার করা হয়, যেখানে ট্রাম্প তার পূর্বসুরীদের এমন অসাধারণ সহযোগিতার জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

ট্রাম্প বলেন, ‘এই চমৎকার উদ্যোগ এটাই প্রমাণ করে আমরা ঐক্যবদ্ধ এক জাতি, ঈশ্বরের কৃপায় আমাদের মূল্যবোধ ও পারস্পরিক ভক্তির জায়গায় সামঞ্জস্য রয়েছে।

দুর্যোগের সময়ে রাজনৈতিক ভেদাভেদ ভুলে মার্কিন প্রেসিডেন্টদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার ঘটনা ইতিহাসের পাতায় এই প্রথম নয়। ২০০৫ সালে যুক্তরাষ্ট্রের উপকূলে হারিকেন ক্যাটরিনা আঘাত হানার পর বিল ক্লিনটন ও বুশ সিনিয়র একযোগে ত্রাণ তহবিল গঠনে কাজ করেছেন, যদিও রাজনীতির মঞ্চে তারা পরস্পরের প্রতিদ্বন্দ্বী। ২০১০ সালে হাইতিতে ভয়াবহ ভূমিকম্পের পর তৎকালীন প্রেসিডেন্ট ওবামা সাবেক দুই প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটন ও বুশ সিনিয়রের সহযোগিতা চান। তারাও কার্পণ্য করেননি সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিতে। সূত্র: যমুনা টিভি

Comments

comments

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

3 + 2 =