দীর্ঘ টালবাহানার পর অবশেষ ফেসবুকের পেড নিউজ সাবস্ক্রিপশন সার্ভিস পরিষেবার পরীক্ষামূলক যাত্রা শুরু হয়েছে। প্রথম দফায় আমেরিকা ও ইউরোপের অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসে এই পরিষেবা চালু হবে। এই পরিষেবার অধীনে ইনস্ট্যান্ট আর্টিকল ফরম্যাটে খবর পড়ার জন্য টাকা খরচ করতে হবে। গত জুলাই মাসে এই প্রকল্পের ঘোষণা হলেও অবশেষে অক্টোবরের তৃতীয় সপ্তাহে পথ চলা শুরু করল পেড নিউজ সাবস্ক্রিপশন সার্ভিস।

একটি ব্লগ পোস্টে ফেসবুক জানিয়েছে, নতুন পদ্ধতিতে খবর পড়ার জন্য দুটি মডেল চালু হবে। প্রথমটিতে, ১০টি খবর ফ্রি-তে পড়া যাবে। তারপর কোনও প্রকাশনা সংস্থার খবর পড়তে হলে টাকা খরচ করতে হবে।

দ্বিতীয় মডেল অনুযায়ী, প্রকাশনা সংস্থাগুলিই ঠিক করতে পারবে, কোন কোন খবর ইউজাররা ফ্রি-তে পড়তে পারবেন। বাকি খবর পড়তে গ্রাহকদের টাকা দিয়ে সাবস্ক্রিপশন করতে হবে। খবর পড়ার জন্য যে টাকা লাগবে, তা কিন্তু ফেসবুক কর্তৃপক্ষ নেবে না। ১০০% টাকাই যাবে প্রকাশনা সংস্থার ঘরে।

প্রথম দফায় ওয়াশিংটন পোস্ট, দ্য ইকোনমিস্ট-এর মতো ১০টি শীর্ষ প্রকাশনা সংস্থার সঙ্গে ফেসবুকের চুক্তি হয়েছে। এতদিন ফেসবুক চেষ্টা করছিল, পাঠকদের নিজের নেটওয়ার্কেই ধরে রাখতে। কিন্তু যেভাবে ফেসবুকে মিথ্যা ও বিভ্রান্তিমূলক খবর দিন দিন বেড়েই চলেছে, তা দেখে এবার প্রকাশনা সংস্থার কোর্টে বল ঠেলে দিল ফেসবুক।

বিশ্বের জনপ্রিয় সোশ্যাল এই সাইটটির বিরুদ্ধে ২০১৬-র মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের সময় মিথ্যা খবর প্রচারের অভিযোগ উঠেছিল। তবে বেশ কয়েকটি বড় প্রকাশনা সংস্থা আবার ফেসবুকের সঙ্গে গাঁটছড়া বাধতে নারাজ। কারণ, নতুন নীতি মোতাবেক ফেসবুক তাদের ব্যববহারকারীদের তথ্য প্রকাশনা সংস্থাগুলোকে দেবে না। সূত্র: বিডি প্রতিদিন

Comments

comments

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

11 − four =