আমার মনে হয় রোহিঙ্গা নিয়ে বাংলাদেশে একটি কঠিন বিপদের গন্ধ পাওয়া যাচ্ছে। আমার ছোট চিন্তা থেকে এটা বলে রাখলাম। এটা একদিন ঠিকই বাস্তবে প্রফলিত হবে। আমাদের উচিত হবে ভেবে চিন্তে পা ফেলা এবং অন্য সব ক্ষমতাধর রাষ্ট্রর সাহায্যের মাধ্যমে এগিয়ে যাওয়া এবং এই সমস্যার মোকাবেলা করা। অনেকে বলেন মিয়ানমারের উপর হামলা করা হোক। আমি বলবো আবেগ দিয়ে সব কাজ হয় না।

আমাদের দেশ যুদ্ধ কাকে বলে তা জানে। তাই খুব সতর্ক থাকতে হবে। আমরা যে দল করি না কেন? আমরা বাঙ্গালী। আমাদের দেশের ক্ষতি হোক এমন কাজ হতে সবারই বিরত থাকা উচিত। আমাদের সকলের উচিত সঠিক ভাবে এই বিপদ হতে কি করে মুক্তি
পাওয়া যায় তার পথ খোঁজা ।

যদি কূটনৈতিক ভাবে সমাধান করা যায় তাহলে ভালো। আমাদের ৪৬-৪৭ বছরের তিলে তিলে গড়া এই স্বাধীনতা একটু উনিশ বিশ হলে ধুলিসাৎত হয়ে যাবে তা ভেবে দেখেছেন কি?

জাতিসংঘের তথ্য মতে ইতোমধ্যে তিন লাখ ৭০ হাজার রোহিঙ্গা মুসলিম বাংলাদেশে ঢুকে পড়েছে। তাদের মধ্যে ৬০ ভাগই শিশু আর বাকিরা নারী। আর পুরুষদেরকে হত্যা করেছে বার্মার সেনাবাহিনী। এই শিশুদের কি হবে একটু ভেবে দেখবেন কি?

এদের দরকার খাদ্য, বাসস্থান, চিকিৎসা ও বস্ত্র অভিভাবক কে হবে এদের? কি হবে বাংলাদেশের? এমনিতেই বাংলাদেশে ক্ষুদ্র দুর্ভিক্ষ চলছে। তাহা সরকার মানুক আর না মানুক নিম্ন আয়ের মানুষ কিন্তু টের পাচ্ছেন। চাল কিনতে গেলে চোখে জল চলে আসে।

লেখক: এমএম আশরাফুল আলম

Comments

comments

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

18 + 11 =