আইএস নেতা আবু বকর আল বাগদাদি বেঁচে আছেন এবং সিরিয়ায় আইএসের একটি ভ্রাম্যমাণ হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন বলে জানিয়েছেন ইরাকের একজন শীর্ষস্থানীয় গোয়েন্দা কর্মকর্তা।

এই নেতা নিহত হয়েছেন বলে বিভিন্ন সূত্রে খবর সম্প্রচার হওয়ার প্রায় এক বছর পর নতুন এ খবর সামনে এলো।
ইরাকের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের গোয়েন্দা ও কাউন্টার- টেরোরিজম অপারেশন্স সার্ভিসের প্রধান আবু আলি আল-বসরির বরাত দিয়ে বাগদাদ থেকে প্রকাশিত দৈনিক আস-সাবাহ এ খবর দিয়েছে।

আবু আলি আল-বসরি সোমবার বলেছেন, ‘সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর কাছ থেকে পাওয়া এমন অকাট্য তথ্যপ্রমাণ আমাদের কাছে আছে যা দিয়ে প্রমাণ হয় আবু বকর আল-বাগদাদি এখনো বেঁচে আছেন।’

তিনি আরো জানান, বাগদাদি বর্তমানে সিরিয়ার উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় হাসাকা প্রদেশের জাজিরা অঞ্চলে অবস্থান করছেন। ডায়াবেটিসে আক্রান্ত এবং গুরুতর আহত বাগদাদি কারো সাহায্য ছাড়া চলতে পারেন না। ইরাকে আইএস-বিরোধী বিমান হামলার সময় তিনি আহত হয়েছেন বলে বসরি জানান। তবে ইরাক ও সিরিয়া থেকে আইএস উৎখাত হয়ে যাওয়ার পরও বাগদাদি কিভাবে এবং কাদের আশ্রয়ে সিরিয়ায় অবস্থান করছেন সে সম্পর্কে কিছু জানাননি এই গোয়েন্দা কর্মকর্তা।

গত সপ্তাহে ইরাক কর্তৃপক্ষ ইন্টারন্যাশনাল মোস্ট ওয়ান্টেড সন্ত্রাসী নেতাদের একটি তালিকা প্রকাশ করে, যার শীর্ষে রয়েছেন ইবরাহিম আওয়াদ ইবরাহিম আলি আল-বদরি আস-সামুরাঈ ওরফে আবু বকর আল-বাগদাদি। এর আগে গত বছরের (২০১৭) জুন মাসে রাশিয়ার উপপররাষ্ট্রমন্ত্রী ওলেগ সিরোমোলোটভ বলেছিলেন, মে মাসে সিরিয়ার রাকার উপকণ্ঠে তাদের একটি কমান্ড পোস্টে রুশ বিমানবাহিনীর হামলায় বাগদাদি নিহত হয়েছেন।

এরপর জুলাই মাসে ইরাকের প্রদেশ নেইনাভার স্থানীয় একটি অজ্ঞাত সূত্র আস-সুমেরিয়া টেলিভিশন চ্যানেলকে জানায়, আইএস এক সংক্ষিপ্ত বিবৃতিতে তাদের নেতার নিহত হওয়ার কথা নিশ্চিত করেছে।

আস-সুমেরিয়ার প্রচারিত ওই খবরের কয়েক দিন পর মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী জেমস ম্যাটিস বলেন, বাগদাদি নিহত হয়েছেন বলে তাদের কাছে কোনো প্রমাণ নেই। সর্বশেষ বসরি বললেন, বাগদাদি জীবিত আছেন এবং সিরিয়ায় পালিয়ে বেড়াচ্ছেন।

আরও পড়ুনঃ   হজযাত্রীদের জন্য ভিসা প্রক্রিয়া সহজ করবে সৌদি আরব

Comments

comments

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

7 − three =