টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়েছেন ২০১৪ সালে। ছেড়ে দিয়েছেন সীমিত ওভারের ক্রিকেটে অধিনায়কত্বও। ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে খেলা চালিয়ে গেলেও ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) নতুন পরিকল্পনায় বিরাট কোহলি, রোহিত শর্মাদের চেয়ে বেতন কমে যাচ্ছে মহেন্দ্র সিং ধোনির। বোর্ডের শীর্ষ চুক্তি থেকে বাদ পড়তে যাচ্ছেন ভারতীয় ক্রিকেটের সফলতম এ অধিনায়ক।

জি মিডিয়া ব্যুরো জানিয়েছে, সুপ্রিম কোর্টের মাধ্যমে নিয়োগ পাওয়া বিসিসিআইয়ের অন্তর্বর্তীকালীন কমিটি ক্রিকেটারদের জন্য যে চার স্তরের নতুন বেতন কাঠামো তৈরি করতে যাচ্ছে, সেটিতে ধোনি শীর্ষ স্তরে থাকছেন না। এ বছরের শুরুতে বোর্ডের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ ভারতীয় ক্রিকেটারদের বেতন বাড়লেও তাতে খুশি ছিলেন না কোহলি-রোহিতরা। তাঁরা বেতন বাড়ানোর কথা বলেছিলেন। বিশেষ করে যেসব ক্রিকেটার তিন সংস্করণেই দেশকে প্রতিনিধিত্ব করছেন, তাঁদের বেতন বেশি হওয়া উচিত—এমনটাই দাবি।
কোচ রবি শাস্ত্রীও ক্রিকেটারদের এই ভাবনাকে সমর্থন দিয়েছিলেন। বছর ঘুরতেই ব্যাপারটি নিয়ে চূড়ান্ত একটা সিদ্ধান্তে যাচ্ছে বোর্ড। সম্প্রতি এক বৈঠকে বিসিসিআইয়ের অন্তর্বর্তীকালীন কমিটি ক্রিকেটারদের বেতন বাড়ানো সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এ লক্ষ্যে বেতন কাঠামোটি চার স্তরে ভাগ করে পুনর্বিন্যাসের উদ্যোগ নিয়েছেন কমিটির সদস্যরা।
নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, ভারতীয় ক্রিকেটাররা এখন থেকে বোর্ডের সঙ্গে ‘এ প্লাস’, ‘এ’, ‘বি’ ও ‘সি’ এই চার ক্যাটাগরিতে চুক্তিবদ্ধ হবেন। তিন সংস্করণের ক্রিকেটে খেলা ক্রিকেটাররা থাকবেন ‘এ প্লাস’ ক্যাটাগরিতে। এই দলে অবশ্যই বিরাট কোহলি, রোহিত শর্মা, শিখর ধাওয়ানরা থাকবেন। এই দলে ধোনির থাকার কোনো কারণ নেই। তাঁর স্থান হচ্ছে ‘এ’ ক্যাটাগরিতে।
গত বছর বেতন বাড়ার পর একজন শীর্ষ (‘এ’ ক্যাটাগরির) ভারতীয় ক্রিকেটারের বার্ষিক বেতন ১ কোটি থেকে বেড়ে হয়েছিল ২ কোটি। নতুন ‘এ প্লাস’ ক্যাটাগরির এখন কত হবে—দেখার বিষয় এটিই।

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   ফাইনাল জিততে বাংলাদেশকে করতে হবে ২২২ রান

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

nineteen − 11 =