গত একটা মাস ধরে গোটা দুনিয়া বুঁদ হয়ে ছিল বিরাট কোহলি আর আনুশকা শর্মার বিয়ে নিয়ে। ইতালি আর ভারত মিলিয়ে ‘বিরুশকা’র জাঁকালো বিয়ে মাথা ঘুরিয়ে দিতে বাকি রেখেছিল ভক্তদের। গণমাধ্যম সরব ছিল এই বিয়ের নানা ছবি আঁকতে। কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের শুরুতেই সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ট্রলের শিকার হলের ভারতীয় অধিনায়ক।
গতকাল কেপটাউন টেস্টের শুরুটা ভালোই করেছিল ভারত। ভুবনেশ্বর কুমারের দারুণ বোলিংয়ে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ২৮৬ রানে অলআউট করেও লাভ হয়নি। নিজেদের প্রথম ইনিংসে ব্যাটিংয়ে নেমে দিন শেষে ২৮ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে বিপর্যয়কর অবস্থা ভারতের। ২০১৭ সাল জুড়ে ‘অতিমানবীয়’ পারফরম্যান্স করা কোহলি ব্যর্থ হয়েছেন। মাত্র ৫ রান করেই মরনে মরকেলের বলে কুইন্টন ডি ককের ক্যাচ হয়েছেন তিনি। কিন্তু সমস্যাটা হচ্ছে, টুইটারে বিয়ের প্রসঙ্গ টেনে এনে সবাই এখন ধুয়ে দিচ্ছে কোহলিকে। আনুশকাকেও নিশানা বানিয়েছেন অনেকেই।
প্যাড্ডি নামে একজন লিখেছেন, ‘কোহলির হানিমুন আনুষ্ঠানিকভাবে শেষ হয়ে গেল।’
আরেকজন মজা করে টুইটারে বিরাট ও আনুশকার একটা কাল্পনিক কথোপকথন তুলে ধরেছেন। সেখানে কোহলিকে আনুশকা নিজেদের দ্বিতীয় হানিমুনের স্থান সম্পর্কে জিজ্ঞেস করতেই কোহলির উত্তর. ‘আমাদের পরের হানিমুনটা দেশের মধ্যেই করতে হবে। কারণ, আমি দেশের মাটিতেই ভালো খেলি।’
কোহলির ব্যর্থতায় ‘বিরুশকা’ দম্পতিকে নিয়ে প্রচুর বিরূপ মন্তব্য আসলেও তাঁদের পক্ষে দাঁড়ানোর মানুষও কম নেই। কোহলির ব্যর্থতায় তাঁর স্ত্রী আনুশকাকে লক্ষ্যবস্তু বানানোর সমালোচনা ঝরেছে অনেকেরই মন্তব্যেই। অনেকেই আশা করেছেন, পরের ইনিংস থেকেই স্বরূপে ফিরে সমালোচকদের দাঁতভাঙা জবাব দেবেন ভারতীয় অধিনায়ক।

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   মেসি-রোনালদোর ‘গোপন’ ফোনালাপ!

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

three × 2 =