দামি একটি স্পোর্টস কারের রং গাজরের মতো দেখে কামড় দিয়েছিল একটি গাধা। পরে ওই গাড়ির মালিক গাধার বিরুদ্ধে মামলা করেন। যুক্তিতর্ক শুনানির পর মামলার রায় গেছে গাড়ির মালিকের পক্ষে। আর ক্ষতিপূরণ হিসেবে জার্মানির ওই ব্যক্তি পেয়েছেন ৬ হাজার ৮০০ ডলার।

বিবিসি ও এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, মার্কাস জাহান নামের এ ব্যক্তি গত বছর সেপ্টেম্বর মাসে বহুমূল্য ম্যাকলারেন স্পাইডার স্পোর্টস কারটি জার্মানির ভোগোলসবার্গ শহরের একটি আস্তাবলের কাছে পার্ক করেন। কাজ শেষে ফিরে দেখেন দামি এই গাড়ির পেছন দিকের অংশটি কেউ চিবিয়ে খেয়ে ফেলার চেষ্টা করেছে। খোঁজ নিয়ে তিনি জানতে পারেন, ওই আস্তাবলের ভাইটাস নামের এক ক্ষুধার্ত গাধা করেছে এ কাজ।

ঘটনা এখানেই শেষ নয়। ওই গাড়ির মালিক গাধার মালিকের কাছে ক্ষতিপূরণ চেয়ে আদালতে মামলা করেন। মামলার রায়ে আদালত ৬ হাজার ৮০০ ডলার ক্ষতিপূরণ দেওয়ার জন্য ভাইটাসের মালিককে আদেশ দেন। গাধার মালিক ক্ষতিপূরণ দিতে অস্বীকার করেছেন। তিনি এই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করবেন বলে জানিয়েছেন। তাঁর যুক্তি হলো, এ ঘটনায় ভাইটাসের কোনোই দোষ নেই। ৩ লাখ ১০ হাজার ইউরো দামের এই গাড়িটিকে আস্তাবলের পাশে পার্ক করে রাখা গাড়ির মালিকের মোটেই উচিত হয়নি বলেও তিনি মনে করেন।

মার্কাস জাহান জার্মান ট্যাবলয়েড বিল্ডকে বলেন, ‘আমি গাড়ির লুকিং আয়নায় তাকিয়ে দেখলাম। হঠাৎ একটা অদ্ভুত শব্দ শুনতে পেলাম। শব্দটি গাধার কামড় থেকে এসেছিল।’

কমলা রঙের ওই গাড়িটির চাকার ওপরের একটি অংশকে গাধাটি গাজর বলে ভুল করে থাকতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

টেলিগ্রাফের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, গাধার মালিক ক্ষতির জন্য অর্থ প্রদানে অস্বীকৃতি জানিয়েছে। ম্যাকলারেন কারের মালিককে অন্য কোথাও গাড়ি পার্ক করা উচিত ছিল। আদালতে গেলেও গাধার ওপর রাগ নেই গাড়ির মালিক মার্কাসের। গাধা সম্ভবত ওই গাড়িটি চাকার ওপরের অংশকে গাজর মনে করেছিল।

Comments

comments

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

sixteen − fourteen =