চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (চুয়েট) শিক্ষার্থীদের উপর হামলার জের ধরে শিক্ষার্থীরা আজ দ্বিতীয় দিনের মত ক্লাস ও পরীক্ষা বর্জন করে অবস্থান কর্মসূচি চালায়। এতে ক্যাম্পাসের স্বাভাবিক কার্যক্রম স্থবির হয়ে যায়।

আজ মঙ্গলবার সকাল ১১ টা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন প্রশাসনিক ভবনের সামনে শিক্ষার্থীরা অবস্থান কর্মসূচি পালন করে। কর্মসূচিতে উপস্থিত পুরকৌশল বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী রাফসান জানি রিসান বলেন, আমরা দ্রুত ক্লাসে ফিরে যেতে চাই কিন্তু সেই সাথে আমাদের জানমালের নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণের দাবি জানাচ্ছি।

প্রত্যক্ষদর্শী শিক্ষার্থীদের সূত্রে জানা যায়, গত রোববার রাত সাড়ে নয়টায় ক্যাম্পাসগামী চুয়েটের বাসগুলো অক্সিজেন মোর পার হবার সময় স্থানীয় সন্ত্রাস আবদুর নবী লেদু ও তার বাহিনী নিয়ে শিক্ষার্থীদের উপর হামলা চালায় এতে তিন শিক্ষার্থী খুব আহত হয়। তা ছাড়াও লেদু ও তার কয়েকজন অনুসারী আহত হয়েছে জানা যায়। এতে অনিরাপত্তার আশংকায় আজকেও কোন চুয়েট বাস শহরের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়নি। তারই প্রেক্ষিতে নিরাপত্তা নিশ্চিতে শিক্ষার্থীরা এই কর্মসূচি পালন করে।

এই ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রকল্যাণ পরিচালক অধ্যাপক মোহাম্মদ মশিউল হক বলেন, শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার স্বার্থে আজও চট্টগ্রাম শহরে চুয়েট বাস চলাচল বন্ধ ছিল।

এই ব্যাপারে করণীয় সঠিক পদক্ষেপ নেয়ার জন্যে উপাচার্য মহোদয় সকল ডিন ও সকল বিভাগের বিভাগীয় প্রধানদের সাথে বিকাল ৪টায় বৈঠক করেন।

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   চাকুরি জাতীয়করণের দাবিতে সিএইচসিপি’র অবস্থান কর্মসূচি শুরু

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

12 − five =