ফাতেমা তুজ জোহুরা: চোখ হল মনের আয়না- তাই তো মণির রঙ বিশ্লেষণ করে যে কোনও মানুষের চরিত্র সম্পর্কেই অনেক কিছু জেনে নেওয়া সম্ভব। মুখের ভাষা যেমন মনের কথাকে সামনে নিয়ে আসে। তেমনি চোখের ভাষা মানুষের ভিতরের ছবিকে আমাদের সামনে তুলে ধরে।

প্রতিটি মানুষেরই মণির রঙ ভিন্ন ভিন্ন হয়। কারও হয় বাদামী, তো কারও নীলাভ। সবুজ, রুপালী, এমন কী ধূসর রঙের মণিও চোখে পরে।আর এই মণির রঙকেই বিশ্লেষন করে মানুষের ব্যক্তিত্ব সম্পর্কে অনেক অজানা কথা জেনে নেওয়া যায়।

তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক মণির রঙ মানুষের ব্যক্তিত্ব সম্পর্কে কি বলে-

* বাদামীঃ চোখের রঙ এমন হলে বুঝতে হবে আপনি অত্যন্ত সৎ একজন মানুষ। মাঝেমাঝে সততার জন্য বিপদেও পরে থাকেন। তবু সততাই আপনার জীবনের একমাত্র ধর্ম। মণির রঙ যাদের এমন, তারা নিজের দায়িত্ব সম্পর্কে বেশ সচেতন হন।তাই তো এমন মানুষদের সবাই বিশ্বাসযোগ্য বন্ধু ভাবেন, সহজে বিশ্বাস করেন।

* নীলঃ এমন মানুষেরা অনেক উচ্চা ভিলাষী এবং জেদি হন। নিজেকে প্রতিনিয়ত উন্নতির শিখরে নিয়ে যাবার জন্য এরা কঠোর পরিশ্রম করেন। এরা স্বার্থপর হন না একেবারেই। কিন্তু অনেকে এদের গম্ভীর বা রাগি ভেবে বেশি মেলামেশা করতে চান না।এরা কাউকে ভালোবাসলে প্রাণ দিয়ে ভালোবাসেন। এমন কি সকল ভুল মাফ করেও ভালবাসতে রাজি থাকেন।

* সবুজঃ এরা খুব আত্মকেন্দ্রিক হন নিজের থেকে বেশি কিছু ভাবতেই পারেন না। তাই তো সবসময় নিজের চিন্তা এবং তত্ত্বকে সবার সেরা বলে বিবেচিত করার ভুল কাজটা করে থাকেন। এমন চোখের অধিকারিরা নিজেদের ভাবনা নিয়েই দিনের বেশিরভাগ সময় পার করে দেন। তবে সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে এমন মানুষদের কোনও বিকল্প হয়না বললেই চলে।

* রুপালীঃ আপনি একজন হাসিখুশি ও উদ্বেগহীন মানুষ। তাই তো সবার কাছেই আপনি প্রিয় পাত্র। এমন মানুষেরা বিশ্বাস করেন, কারও ভাল করলে নিজেরও ভাল হয়। এরা খুব ভাল শ্রোতা হন। এমন মানুষদের সব থেকে বড় গুণ হল এরা সবধরনের দুশ্চিন্তাকে ঝেড়ে ফেলে কীভাবে সমস্যার সমাধান করা যায়, সে বিষয়ে প্রতিনিয়ত চেষ্টা চালাতে থাকেন।

* ধূসরঃ আপনি পুরো পুরিদর্শন তত্ত্বে বিশ্বাসী একজন মানুষ। বেশ আবেগ প্রবণ ও বটে। আপনার চিন্তা ভাবনা আপনার বন্ধু বান্ধব এবং অন্য সবার থেকে সম্পূর্ণ আলাদা।শুধু তাই নয় আপনার ইনটুইশন ক্ষমতাও খুব প্রখর। অন্য সবাই আপনাকে ভুল বুঝে দূরে চলে যায়।

* হলুদঃ আত্মনির্ভরশীলতা এবং স্বাধীনতা অনেক বেশি পছন্দ করেন এমন মানুষের। এরা সামনে থেকে নেতৃত্ব দিতে ভালবাসেন। অনেক ক্ষেত্রেই এরা ভাবেন, সবকিছু আমার মতো করে হতে হবে।তাই মাঝে মধ্য়েই প্রিয়জনের সঙ্গে বিবাদে জড়িয়ে পরেন।

Comments

comments

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

ten − eight =