গুয়েতেমালার প্রেসিডেন্ট জিমি মোরালেস রোববার বলেছেন, তারা ইসরাইলে তাদের দূতাবাস জেরুজালেমে স্থানান্তরের পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছে। এক্ষেত্রে তিনি হলেন প্রথম নেতা যিনি এ পবিত্র নগরীর বিষয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিতর্কিত অবস্থান পরিবর্তনের প্রতি সমর্থন জানালেন। খবর এএফপি’র।
ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর সঙ্গে কথা বলার পর মোরালেস তার ফেসবুক পাতায় গুয়েতেমালার জনগণের উদ্দেশ্যে লেখেন, গুয়েতেমালার দূতাবাস তেল আবিব থেকে জেরুজালেমে ফিরিয়ে নেয়া গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলোর অন্যতম। বর্তমানে তাদের দূতাবাসটি তেল আবিবে অবস্থিত।
মোরালেস লিখেছেন, ‘এ কারণে আমি আপনাদের অবহিত করছি যে এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে আমি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে নির্দেশ দিয়েছি।’
ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে জেরুজালেমকে যুক্তরাষ্ট্রের স্বীকৃতি দেয়ার ট্রাম্পের সিদ্ধান্ত জাতিসংঘের দুই-তৃতীয়াংশ সদস্য দেশ প্রত্যাখ্যান করার তিনদিন পর গুয়েতেমালার নেতা ক্রিসমাস ডে উপলক্ষে এ ঘোষণা দিলেন।

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   মাইকে ঘোষণা দিয়ে পোড়ানো হচ্ছে গ্রাম -সীমান্তে অপেক্ষমাণ আরও ৫০ হাজার রোহিঙ্গা

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

eighteen − nine =