পাকিস্তানে আট বছর বয়সী শিশু জয়নাব আমিন ধর্ষণ ও হত্যার মূল সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে ধরিয়ে দেওয়ার পরও পুলিশ ছেড়ে দিয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে জয়নাবের বাবা মুহাম্মদ আমিন এ দাবি করেন।
ডন অনলাইনের খবরে জানানো হয়, গত মঙ্গলবার পাঞ্জাব প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ জয়নাবের হত্যাকারীকে গ্রেপ্তারের ঘোষণা দেন। তিনি জানান, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের তৎপরতায় খুনিকে ধরা সম্ভব হয়। ২৩ বছর বয়সী ওই হত্যাকারী ও ধর্ষকের নাম ইমরান আলী। শাহবাজ শরিফ এ জন্য পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের ধন্যবাদও জানান।

তবে গতকাল এক সংবাদ সম্মেলনে জয়নাবের বাবা জানান, তিনি ও তাঁর আত্মীয়রা মিলে ইমরানকে ধরে পুলিশের হাতে তুলে দেন। তাঁর দাবির সপক্ষে তিনি একটি ছবিও দেখান। ছবিটি ইমরানের ভাইয়ের বাসায় তোলা। সেখানে দেখা যাচ্ছে, ইমরান একটি খাটিয়ায় বসে আসেন। জয়নাবের বাবা মুহাম্মদ আমিন বলেন, ‘আমরা ওকে (ইমরান) ধরে পুলিশে দিই।’

৪ জানুয়ারি কাসুরে আত্মীয়ের বাড়ি থেকে ফেরার পথে নিখোঁজ হয় জয়নাব। কয়েক দিন পর একটি ময়লার স্তূপ থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

জয়নাবের বাবা বলেন, ঘটনার পর দুবার তাঁরা ইমরানকে ধরে পুলিশে দেন। কিন্তু পুলিশ দুবারই তাঁকে ছেড়ে দেয়। পরে তাঁরা বিষয়টি পাঞ্জাবের পুলিশপ্রধানকে জানান।

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   উত্তর কোরিয়া ইস্যু : আমেরিকাকে সতর্ক করলো রাশিয়া

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

8 + 14 =