শান্ত মাহমুদ:

১৫৫ রানই একটা সময় অনেক দূর মনে হচ্ছিল। কিন্তু মোহাম্মদ মিথুন এবং রবি বোপারার ব্যাটে লক্ষ্যে পৌঁছাল রংপুর রাইডার্স। চার নভেম্বর থেকে শুরু হওয়া বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) নিজেদের প্রথম ম্যাচে রাজশাহী কিংসকে ছয় উইকেটে হারিয়েছে মাশরাফি বিন মুর্তজার দল রংপুর।

শনিবার সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস হেরে প্রথমে ব্যাট করে আট উইকেটে ১৫৪ রান তোলে রাজশাহী কিংস। জবাবে মোহাম্মদ মিথুন ও ইংলিশ অলরাউন্ডার রবি বোপারার ব্যাটে সাত বল হাতে রেখে ছয় উইকেটের জয় তুলে নেয় রংপুর রাইডার্স।

জয়ের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে রংপুর রাইডার্স শুরুতেই খেই হারায়। দলীয় ১৫ রানের মধ্যে ফিরে যান দুই ওপেনার জনসন চার্লস ও অ্যাডাম লিথ। এমন বাজে শুরুর পরও রংপুরকে দিক হারাতে দেননি মোহাম্মদ মিথুন ও শাহরিয়ার নাফিস। তৃতীয় উইকেটে ৭৫ রানের জুটি গড়েন এ দুজন। এ জুটিই মূলত রংপুরকে জয়ের পথে রাখে।

এ সময় নাফিস ঠান্ডা মেজাজে থাকলেও হাত খুলে খেলতে থাকেন মিথুন। ৩৩ বলে এক চার ও তিন ছয়ে ৪৬ রানের দারুণ এক ইনিংস খেলেন মিথুন। ৩৪ বলে ৩৫ রান করে আউট হন শাহরিয়ার নাফিস। এরপর রবি বোপারা ৩৯ ও লঙ্কান অলরাউন্ডার থিসারা পেরেরা ২০ রান করে দলকে জিতেয়ে মাঠ ছাড়েন।

এরআগে টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নামা রাজশাহী কিংস মনের মতো শুরু করতে পারেনি। ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারেই মুমিনুল হককে ফিরিয়ে দেন রংপুরের অফ স্পিনার সোহাগ গাজী। যদিও মুমিনুলকে হারানোর প্রভাব দলের ওপর পড়তে দেননি লুক রাইট ও রনি তালুকার। ৪৯ রানের জুটি গড়ে রাজশাহীকে অনেকটা পথ এগিয়ে দেন এ দুজন।

রাজশাহীর ইংলিশ ওপেনার লুক রাইট অনেকটা সময় উইকেটে ছিলেন। যদিও সেভাবে ব্যাট চালাতে পারেননি। দলীয় ৬১ রানের মাথায় আউট হওয়ার আগে ১৪ বলে ১১ রান করেন ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান। এরপর দ্রুত ফিরে যান মুশফিকুর রহিম ও আরেক ইংলিশ ক্রিকেটার সামিত প্যাটেল। তবে একপাশ আগলে রাখেন রনি তালুকদার।

তার সাথে যোগ দেন নিউজিল্যান্ড অলরাউন্ডার জেমস ফ্রাঙ্কলিন। কিন্তু এবার দিক হারান রনি। ৩৮ বলে তিন চার ও তিন ছয়ে রাজশাহীর পক্ষে সর্বোচ্চ ৪৭ রান করে থামেন ডানহাতি এই ওপেনার। এরপর ফ্রাঙ্কলিন ও অধিনায়ক ড্যারেন স্যামি মিলে রাজশাহীর রানচাকা ঘোরাতে থাকেন।

স্যামি ১৮ বলে ২৯ রান করে আউট হলেও ফ্রাঙ্কলিন ২৬ রানে অপরাজিত থাকেন। এছাড়া মেহেদী হাসান মিরাজের পাঁচ বলে ১৫ রান বেশ এগিয়ে দেয় রাজশাহীকে। রংপুরের নাজমুল অপু ও লঙ্কান পেসার লাসিথ মালিঙ্গা দুটি করে উইকেট নেন। এছাড়া রংপুর অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা ও সোহাগ গাজী একটি করে উইকেট নেন।

Comments

comments

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

twenty − 4 =