বলিউডের মিস্টার পারফেক্টশনিস্ট খ্যাত অভিনেতা আমির খান। সিনেমায় চরিত্র বাছাই এবং তা পর্দায় ফুটিয়ে তুলতে তার জুড়ি মেলা কঠিন। তবে ক্যারিয়ারের প্রথম দিকে চরিত্র বাছাইয়ের ব্যাপারে খুব একটা সচেতন ছিলেন না তিনি। পরবর্তীতে এ নিয়ে বেশ বেগ পেতে হয় তাকে।

১৯৯৫ সালে মুক্তি পায় আমির অভিনীত সিনেমা আতঙ্ক হি আতঙ্ক। হলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় গড ফাদার সিনেমার অনুকরণে তৈরি হয় এটি। এতে মাইকেল কর্লিওন চরিত্রটির বলিউড সংস্করণে অভিনয় করেন তিনি।

আমির খান বলেন, সিনেমাটি মুক্তির পর আমি অত্যন্ত হতাশ হয়েছিলাম। মনে হয়েছিল, এ সিনেমায় আমার অভিনয় করা ঠিক হয়নি। সিনেমা মুক্তির পরই আমি বুঝে গিয়েছিলাম, অত্যন্ত বাজে কাজ হয়েছে। ক্যারিয়ারের ‍শুরুতে খুব একটা ভালো নয় এমন কিছু সিনেমায় অভিনয় করেছি।

যেহেতু হলিউড সিনেমার অনুকরণে তৈরি, তাই চরিত্রের প্রয়োজনে স্যুট পরতে হয়েছিল আমিরকে। কিন্তু এটি যে খুব বড় ধরনের ভুল ছিল তা সিনেমা মুক্তির পর বুঝেছিলেন এ অভিনেতা।  আমির বলেন, আমার মনে হয়েছিল, সিনেমাটি ভারতীয় দর্শকদের মাথায় রেখে নির্মাণ করিনি। এটা এ দেশের আবহাওয়ার সঙ্গে যায় না। এত গরমের মধ্যে একজন কোট পরতে যাবে কেন?।

সিনেমায় তার অভিনয়ের জন্য প্রশংসা পেলেও এ ধরণের ভুলের জন্য নিজেকে ক্ষমা করতে পারেননি তিনি। আমির বলেন, ‘আমি টানা তিন-চার সপ্তাহ ঘুমাতে পারিনি। আমার কমন সেন্স তখন কোথায় গিয়েছিল? তবে এতে আত্ম উপলব্ধি হয়েছে। তারপর থেকে খুবই সচেতনভাবে সিনেমা এবং চরিত্র বাছাই করতে শুরু করি। আমার চরিত্রগুলোর লুক কেমন হবে তা নিয়ে কাজ করি। এতে করে চরিত্রগুলো আরো প্রাণবন্ত হয় ও দেখতে ভালো লাগে।

Comments

comments

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

twenty − three =