ভালোবাসা মানেই দুটি মনের মায়াবী ঘাত-প্রতিঘাত। তা এক মোহনায় মেলাতে, মানে বিয়ের পিঁড়িতে বসতে, চিবোতে হয় নানা রকম যুক্তি-তর্ক। হাল প্রজন্মের কাছে সেই মায়া মাখা তর্কের অন্যতম সেরা স্থান হলো রেস্টুরেন্টের কোনো নিবিড় খাবার টেবিল। পিৎজার পুরে কামড় দিয়ে চার চোখের দুই চোখ হয়ে যাওয়ার মজাই আলাদা! কিন্তু ভালোবাসায় মন্দ্রিত সেই চোখেও মাঝেমধ্যে ভ্রুকুটি দেখা যায়, টেবিল ছেড়ে ওঠার সময়। খাওয়ার বিল দেবে কে? কার দেওয়া উচিত?

অনেক সময় ছেলেরাই পকেটে হাত দেয়। ‘শোভেনিজম’! এটাই নাকি ভদ্রতা। কিন্তু সব সময়, অন্তত বেশির ভাগ সময়ই পুরুষ সঙ্গী ডেটিংয়ে খরচ করছে, এটা কি নারী সঙ্গীর জন্য ভালো? নাকি মন্দ? এ নিয়ে হয়েছে বিস্তর গবেষণা।

যুক্তরাজ্যের ইন্টারনেট-কেন্দ্রিক বাজার-বিশ্লেষক প্রতিষ্ঠান ‘ইউগোভ’ এ প্রশ্নের জবাব খুঁজেছে। তারা সর্বশেষ একটি জরিপ করেছে প্রথম দিনে ডেটে যাওয়া নিয়ে। যুক্তরাষ্ট্রে করা হয়েছিল এই জরিপ। তাতে প্রশ্ন করা হয়েছিল, যদি আপনার সঙ্গী প্রথম অভিসারেই আপনাকে বিলের অর্ধেকটা খরচ দিতে বলে, আপনি কি তাতে রাগ করবেন?

৪৯ শতাংশ নারী উত্তর দিয়েছেন, তিনি রাগ করবেন। ২৫ শতাংশ নারী এই উত্তরে সম্মতি বা অসম্মতি কিছুই জানাননি। আর ২৬ শতাংশ নারী উত্তর দিয়েছেন, তাঁরা রাগ করবেন না। অর্থাৎ তাঁরা খরচের অর্ধেকটা দেওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হলে সানন্দে গ্রহণ করবেন।

অন্যদিকে এই প্রশ্নের উত্তরে ২৪ শতাংশ পুরুষ জানিয়েছেন তাঁরা রাগ করবেন। হ্যাঁ বা না কিছুই বলেননি ৩৭ শতাংশ পুরুষ। ৩৯ শতাংশ পুরুষ এই প্রশ্নের সঙ্গে একমত হতে পারেননি।

জরিপে অংশ নেওয়া প্রায় অর্ধেক নারীর অভিমত থেকে উঠে এসেছে, যখন পুরুষ সঙ্গী আমাকে অভিসারে নিয়ে যাচ্ছে, আমিই তার অতিথি। আমার দেখভাল করা তারই দায়িত্ব। সব খরচের ভারও তার। সূত্র: ডেকান ক্রনিকল।

Comments

comments

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

fifteen − 3 =