দক্ষিণ আফ্রিকায় সোনার খনিতে আটকে পড়া নয় শতাধিক শ্রমিককে উদ্ধার করা হয়েছে। দক্ষিণ আফ্রিকার ডিপার্টমেন্ট অব মিনারেল রিসোর্সেস আজ শুক্রবার সকালে উদ্ধারের খবর নিশ্চিত করে।

এর আগে ঝড়ের কারণে বিদ্যুৎ-সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেলে মাটির এক কিলোমিটার গভীরে ৯৫৫ জন শ্রমিক আটকা পড়েন। ২৪ ঘণ্টা সময় পেরিয়ে যাওয়ার পর উদ্ধারকর্মীরা অবশেষে একটি লিফটে বিদ্যুৎ-সংযোগ দিতে সমর্থ হন। তবে প্রকৌশলীরা তখনো জরুরি জেনারেটর-ব্যবস্থা চালু করতে সমর্থ হননি।

জোহানেসবার্গ থেকে ২৯০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে ওয়েলকোম শহরে এই খনিটি অবস্থিত। সাইবানি-স্টিলওয়াটার নামের একটি কোম্পানির তত্ত্বাবধানে রয়েছে এটি। খনিটির ২৩টি ভাগ রয়েছে এবং ভূমি থেকে এটি প্রায় ১০০০ মিটার গভীরে।
শ্রমিকদের উদ্ধারের পর সেবা দিতে বেশ কয়েকটি অ্যাম্বুলেন্স ঘটনাস্থলে রয়েছে।

এর আগে পরিচালন প্রতিষ্ঠানের মুখপাত্র জেমস ওয়েলস্টেড জানিয়েছিলেন, কারও অবস্থা খুব খারাপ—এমন তথ্য এখনো পাওয়া যায়নি। গতকাল বৃহস্পতিবার আটকে পড়া শ্রমিকদের কাছে খাদ্য ও পানি সরবরাহ পৌঁছানো সম্ভব হয়।

বিশ্বের প্রধান সোনা উৎপাদনকারী দেশ হওয়া সত্ত্বেও দক্ষিণ আফ্রিকার এ শিল্পে শ্রমিকের নিরাপত্তাব্যবস্থা নিয়ে প্রায়ই প্রশ্ন ওঠে। ২০১৭ সালে দেশটিতে খনি দুর্ঘটনায় ৮০ জনের বেশি হতাহত হন।

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   প্রিন্স হ্যারির পপকর্ন ‘চুরি’ করে খেল দুই বছরের শিশু

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

6 − five =