মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে নির্মিত বাংলাদেশের প্রথম সরকারি বিশেষায়িত ‘মাছের বাজার’ আনুষ্ঠানিকভাবে চালু করা হয়েছে।
মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দ এমপি আজ বৃহস্পতিবার প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এর উদ্বোধন করেন।
বাংলাদেশ মৎস্য উন্নয়ন কর্পোরেশন (বিএফডিসি) যাত্রাবাড়ীতে ৭ কোটি ৩৯ লাখ টাকা ব্যয়ে এটি নির্মাণ করেছে।
বিএফডিসি চেয়ারম্যান দিলদার আহমদের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন হাবিবুর রহমান মোল্লা এমপি এবং মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ সচিব মোঃ মাকসুদুল হাসান খান।
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ‘ঢাকা মহানগরে মৎস্য বিপণন সুবিধাদি স্থাপন প্রকল্প’- এর আওতায় নির্মিত ‘ঢাকা মহানগর মৎস্য বিপণন সুবিধাকেন্দ্র’ নামক ৬ তলাবিশিষ্ট এই মৎস্য মার্কেটে মৎস্য ব্যবসায়ীদের সুবিধার্থে ৬১টি আড়ৎঘর, ৬১টি গদিঘর ও ৬১টি থাকার ঘর বরাদ্দ প্রদান করা হয়েছে।
অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে মৎস্য-অবতরণ, বাজারজাতকরণ ও বিপণন পদ্ধতির আধুনিকায়নই এই প্রকল্পের উদ্দেশ্য। কেন্দ্রটিতে স্বাস্থ্যকর পরিবেশে মৎস্য-অবতরণ, বাজারজাতকরণ ও বিপণনকার্যক্রম পরিচালনা করা হবে, যাতে ঢাকা মহানগরে ফরমালিনমুক্ত মাছ সরবরাহ সম্ভবপর হয়।
এই প্রকল্পের আওতায় বিএফডিসি সড়ক ও জনপথ বিভাগের অব্যবহৃত ১৫ শতক জমি ক্রয় করে এই মৎস্যবাজার নির্মাণ করে। আর্থিক লেনদেনের সুবিধার্থে ভবনে একটি ব্যাংক ও একটি খাবার হোটেলও স্থাপন করা রয়েছে।
কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, এখানে মৎস্য ব্যবসায়ীদের নিকট থেকে বার্ষিক ৮০ লাখ টাকা ভাড়াবাবদ আয় হবে। অবশিষ্ট আড়ৎঘর ও গদিঘর বরাদ্দ প্রদান করা হলে বার্ষিক ২ কোটি টাকা ভাড়া পাওয়া যাবে বলে তারা আশা করছেন।

(বাসস)

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   জনজীবনে রোহিঙ্গাপ্রভাব

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

three × three =