চলতি বছরের নভেম্বর মাসে সারাদেশে মোট হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়েছে ১৮৫টি। নভেম্বরে গড়ে প্রতিদিন হত্যাকাণ্ড ঘটে ছয়জনের বেশি। এছাড়া পরিবহন দুঘর্টনায় মারা গেছেন আরোও ২১৫ জন। ৩২টি ধর্ষণের তথ্য জানা গেছে। বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন বিভিন্ন জেলা, উপজেলা ও পৌরসভার শাখা থেকে প্রাপ্ত তথ্য এবং বিভিন্ন জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদের ভিত্তিতে এই প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে। বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন এ ধরনের হত্যাকাণ্ড অবশ্যই আইনশ্রঙ্খলা পরিস্থিতির চরম অবনতি বলে উল্লেখ করেছে। সেইসঙ্গে হত্যাকাণ্ডের হার ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পাওয়ায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন অনুসন্ধানের জরিপে দেখা যায়, নভেম্বরে যৌতুকের কারণে পাঁচজন হত্যার শিকার হন, পারিবারিক সহিংসতায় ৩৪ জন, সামাজিক সহিংসতায় ৪৩ জন, রাজনৈতিক কারণে চারজন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে নয়জন, বিএসএফের হাতে পাঁচজন, চিকিৎসকের অবহেলায় মৃত্যু আট জনের, অপহরণ করে হত্যা চারজন, গুপ্তহত্যা সাতজন ও রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে ৬৩ জনের। আর ধর্ষণের পর দুজন ও এসিড নিক্ষেপে একজনের মৃত্যু হয়। এছাড়া বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন প্রতিবেদনে জানায় আত্মহত্যা করেছেন ২৯ জন। নভেম্বর মাসে ৩২টি ধর্ষণের কথা জানা গেছে। আর যৌন নির্যাতনের ঘটনা প্রকাশ পেয়েছে নয়টি। এই মাসে ১০ জন সাংবাদিক নির্যাতনের শিকার হন। বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন বিভিন্ন জেলা, উপজেলা ও পৌরসভার শাখা থেকে প্রাপ্ত তথ্য এবং বিভিন্ন জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় 

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   ফুলের রাজধানীতে ৪৫ কোটি টাকার বাণিজ্য

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

4 × 2 =