বিয়ে বা সম্পর্কের এক বছরের মধ্যেই নারীরা সঙ্গীদের সঙ্গে শারীরিক সংসর্গের আগ্রহ হারিয়ে ফেলেন। মাত্র ১২ মাস একসঙ্গে বাস করার পরই ওই সঙ্গীর প্রতি নারীদের আর কোনো যৌন আকর্ষণ থাকে না বলে এক গবেষণায় তথ্য পাওয়া গেছে।

ব্রিটিশ অনলাইন দ্য ইনডিপেনডেন্ট-এর প্রতিবেদনে বলা হয়, সম্প্রতি যুক্তরাজ্যের সাউদাম্পটন ইউনিভার্সিটির একদল গবেষক এই গবেষণা করেন। এই গবেষণা প্রতিবেদন ব্রিটিশ মেডিকেল জার্নাল ওপেনে প্রকাশিত হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, গবেষণায় ৪ হাজার ৮৩৯ জন পুরুষ ও ৬ হাজার ৬৬৯ জন নারী অংশ নিয়েছেন। তাঁদের বয়স ১৬ থেকে ৭৪ বছরের মধ্যে।

গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়, গবেষণায় অংশ নেওয়া নারীরা বলেন তাঁরা দ্রুত সঙ্গীদের সঙ্গে শারীরিক সংসর্গে আগ্রহ হারিয়ে ফেলেন। এ ছাড়া সন্তান জন্ম দেওয়ার পর আগ্রহ আরও কমে যায়।

গবেষণা দলের প্রধান ইউনিভার্সিটি অব সাউদাম্পটনের সাইকোলজি, সেন্টার ফর সেক্সুয়াল হেলথ রিসার্চ বিভাগের অধ্যাপক সিনথিয়া গ্রাহাম বলেন, মূলত ক্লান্তি ও অবসাদে ভোগার কারণেই সংসর্গের আগ্রহ কমে যাচ্ছে। এ ছাড়া সঙ্গী বা সঙ্গিনীর প্রতি পারস্পরিক আবেগ ও সম্পর্কের অবনতি এবং স্বাস্থ্যগত সমস্যার কারণেই এমনটা ঘটছে।

গবেষকেরা বলছেন, শারীরিক সংসর্গের কারণে সংক্রমিত যৌন রোগের ভয় ও অতীতে কাউকে জোর করে শারীরিক সংসর্গ করার অভিজ্ঞতা এই প্রবণতাকে বহুগুণ বাড়িয়ে দিচ্ছে।

গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ৫৫ থেকে ৬৪ বছর বয়সী নারীদের ক্ষেত্রে শারীরিক সংসর্গ করার প্রবণতা সবচেয়ে কম। আর পুরুষদের ৩৫ থেকে ৪৪ বছর পর্যন্ত এই প্রবণতা কমে যায়। তবে এ ক্ষেত্রে নারীদের মেনোপজ হওয়া একটা বিষয় কি না, তা গবেষকেরা নিশ্চিত করে বলেননি। গবেষণায় অংশ নেওয়া ৩৪ শতাংশ নারী বলেছেন, সঙ্গীদের প্রতি তাঁদের আর কোনো যৌন আকর্ষণ নেই। অন্যদিকে মাত্র ১৫ শতাংশ পুরুষ এ কথা বলেন।

গবেষণা প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, ১৮ থেকে ২৯ বছর বয়সী নারী ও পুরুষ বছরে গড়ে ১১২ বার শারীরিক সংসর্গ করেন। বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে এটা কমে যায়। ৩০ থেকে ৩৯ বছর বয়সে নারী ও পুরুষ গড়ে ২৬ বার সঙ্গী বা সঙ্গিনীর সঙ্গে শারীরিক সংসর্গ করেন। এ ছাড়া যেসব নারীদের একাধিক সঙ্গী থাকে তাঁদের ক্ষেত্রে কোনো সঙ্গীর প্রতি যৌন আকর্ষণ দ্রুত কমে যাওয়ার প্রবণতা লক্ষ করা গেছে। আর প্রতি পাঁচজনের মধ্যে একজন করে বয়স্ক নারী তাঁদের যৌন জীবন নিয়ে সন্তুষ্ট নন।

Comments

comments

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

5 × one =