মালদ্বীপের সাবেক প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ নাশিদ অবিলম্বে হস্তক্ষেপ করার জন্য ভারতের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। প্রেসিডেন্ট আবদুল্লাহ ইয়ামিন জরুরি অবস্থা জারি এবং প্রধান বিচারপতিকে গ্রেফতার করার প্রেক্ষাপটে তিনি এ আহ্বান জানালেন।

স্বেচ্ছা-নির্বাসনে থাকা সাবেক প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ নাশিদ মঙ্গলবার ‘‌দ্রুত প্রদক্ষেপ’ গ্রহণের জন্য ভারতের প্রতি আহ্বান জানান।
এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, আমরা চাই ভারত একজন দূত পাঠাক, সামরিক বাহিনী দূতের কার্যক্রমকে সমর্থক দিক, বিচারপতি ও রাজবন্দিদের মুক্তির ব্যবস্থা করে দিক।
তিনি বলেন, প্রেসেডন্ট ইয়ামিনের জরুরি অবস্থা ঘোষণা কার্যত মালদ্বীপে সামরিক আইন জারির সামিল। এই ঘোষণা অসাংবিধানিক ও অবৈধ। মালদ্বীপের এর প্রয়োজন নেই।
তিনি বলেন, আমাদেরকে অবশ্যই ইয়ামিনকে অপসারণ করতে হবে। মালদ্বীপের বিশ্বের বিশেষ করে ভারত ও যুক্তরাষ্ট্রের সমর্থন প্রয়োজন।
তিনি ইয়ামিন সরকারের নেতাদের সাথে সব ধরনের আর্থিক লেনদেন বন্ধ করার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।
সূত্র : এনডিটিভি

মালদ্বীপের প্রধান বিচারপতি গ্রেফতার : পুলিশ

মালদ্বীপের প্রধান বিচারপতি আব্দুল্লাহ্ সাঈদ ও সুপ্রিম কোর্টের অপর বিচারক আলি হামিদকে মঙ্গলবার ভোরে গ্রেফতার করা হয়েছে।
দেশটির পুলিশ একথা জানিয়েছে। খবর বার্তা সংস্থা এএফপি’র।
মালদ্বীপের প্রেসিডেন্ট আব্দুল্লাহ্ ইয়ামিন জরুরি অবস্থা জারি করার কয়েকঘণ্টা পর তাকে গ্রেফতার করা হলো।
পুলিশের পক্ষ থেকে এ ব্যাপারে এক সংক্ষিপ্ত বিবৃতিতে বলা হয়েছে, দুর্নীতির অভিযোগে সাঈদ ও আলি হামিদকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
এর আগে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা রাজধানী মালের ওই আদালত প্রাঙ্গণে ঢুকে পড়ে।

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   রাম রহিমের পালিত কন্যাকে নিয়ে গুঞ্জন!

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

18 + 14 =