সম্প্রতি ইংল্যান্ডের ঐতিহ্যবাহী কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়ে গেলো বেস্ট বাম ২০১৭ প্রতিযোগিতা (সেরা নিতম্ব ২০১৭)। এ প্রতিযোগিতার অন্যতম বৈশিষ্ট্য হচ্ছে, বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা তাদের নিম্নাঙ্গের ছবি তুলে তা শৈল্পিকভাবে উপস্থাপন করবে। যাতে করে ঐ ছবিতে নগ্নতার পরিবর্তে ছবির শৈল্পিকতাই বেশি চোখে পড়ে প্রতি বছরের ন্যায় এ বছরের অনুষ্ঠিত হয়ে যাওয়া নিতম্ব প্রতিযোগিতায় জয়ী হয়েছেন ভিতা নামের একজন শিক্ষার্থী।

ভিতা ইংল্যান্ডের ভার্জেনিয়ার একটি কলেজে আইন বিষয়ে পড়াশোনা করছে। ভিতার কাছে প্রতিযোগিতায় প্রথম হওয়ার অনুভূতি জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, প্রতিযোগিতায় প্রথম হওয়ায় আমার যতটা না ভালো লাগছে, তার চেয়ে বেশি আনন্দ লাগছে এই ভেবে যে, আমি এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পেরেছি।’

ভিতা আরো বলেন, ‘প্রতিযোগিতাটি অনুষ্ঠিত হওয়ার মাত্র একদিন আগে আমার এক ফটোগ্রাফার বন্ধু আমাকে কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ে বেস্ট বাম ২০১৭ প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে বলে। তারপর আমিও রাজি হয়ে গেলাম। কনকনে শীতের সকালে আমাকে গাছের পাশে দাঁড় করিয়ে সেই ফটোগ্রাফার বন্ধুটি ঝটপট কয়েকটি ছবি তুলে নিলো। কিন্তু সেই ছবিগুলো যে এভাবে প্রথম স্থান দখল করে নেবে তা আমি ভাবতেও পারিনি।

কিন্তু এরকম সাধাসিধে নিতম্বের আলোকচিত্র যে এতো বিপুল ভোটের অধিকারী হতে পারে তা ভিতা ভাবতেও পারেনি। কারণ ভিতার শারীরিক গঠন খুবই সাধাসিধে। অ্যাথলেট কিংবা মডেলদের মতোও নয়। দর্শকদের হয়তো প্রাকৃতিক সাধাসিধে শৈল্পিক নিম্নাঙ্গের ছবিই বেশি নজর কেড়েছে বলে মনে করেন এই প্রতিযোগী।

সূত্র: দ্য সান।

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   মোবাইলে টানা গেম খেলে দৃষ্টি খোয়ালেন তরুণী

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

5 × 3 =