স্পেনে রিয়াল বা রয়্যাল নাম জুড়ে গেছে অনেক ক্লাবের সঙ্গেই। সেটিও রাজামশাইকে খুশি করতে। যদিও রাজার আসল ক্লাব বরাবরই ছিল একটি। আসল রিয়ালও একটি। রাজধানী মাদ্রিদেরই বাকি সব ক্লাব আসলে প্রজাদেরই। লেগানেস যেমন। ওরা নিজেরাই নিজেদের বলে আমরা শসাচাষিদের দল। পুঁচকে সেই লেগানেস কাল রিয়াল মাদ্রিদের মাঠে এসে তাদের হারিয়ে দিয়েছে ২-১ গোলে। আর এই পরাজয়ে কোপা ডেল রের কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে ছিটকে গেল রিয়াল মাদ্রিদ!

প্রথম লেগে ১-০ গোলে জিতে এসেছিল জিদানের দল। তাই হয়তো ঘরের মাঠে রোনালদো–বেলদের রাখেননি জিদান যে পরিস্থিতি বুঝে বদলি হিসেবে নামাবেন। হয়তো ভেবেছিলেন, চেনা বার্নাব্যুতে ড্র করলেই কাজ হয় এমন ম্যাচে দুই ঘোড়াকে একটু বিশ্রাম দিয়ে রাখি। আক্রমণে বেনজেমার সঙ্গী আসনেনিও আর ভাসকেজ।

৩১ মিনিটে হাভিয়ের এরাসো চমকে দিয়ে এগিয়ে দেন লেগানেসকে। তখনই রিয়াল সমর্থকদের বুকে ধুকপুক। প্রথমার্ধ শুধু ১ গোলে পিছিয়ে থেকে শেষ করেনি রিয়াল। লক্ষ্যে নিতে পারেনি একটি শটও। এই মৌসুমে কেবল আর একবারই লক্ষ্যে কোনো শট ছাড়াই প্রথমার্ধ শেষ করেছিল রিয়াল।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই অবশ্য রিয়ালকে দেখে মনে হয়েছিল জেগে ওঠা এক দল। দ্বিতীয়ার্ধের দ্বিতীয় মিনিটে অভয় বার্তা দেন বেনজেমা। কিন্তু ৫৫ মিনিটে ২-১ করে ফেলে লেগানেস। গ্যাবি পিরেসের গোলে।

এরপর আর মনে হয়নি রিয়াল সেমিফাইনালে যেতে পারবে। স্কোয়াডেও রোনালদো-বেলদের রাখেননি জিদান। প্রথম লেগ জিতে কখনোই দ্বিতীয় লেগে হারেনি রিয়াল। শতবর্ষের এই দীর্ঘ ইতিহাসে আস্থা রেখেছিলেন হয়তো কোচ। কিন্তু আগে কখনো হয়নি এমন অনেক লজ্জার সঙ্গে যে টানা দুবারের চ্যাম্পিয়নস লিগ জয়ী কোচের নাম জড়াবে, সেটাই হয়তো ঠিক করে রাখা।

লিগে বার্সেলোনার সঙ্গে ১৯ পয়েন্টের ব্যবধান। কাপে শেষ আট থেকে বিদায়। এখন শেষ ভরসা কেবল চ্যাম্পিয়নস লিগ ট্রফি। সেখানে নেইমার-কাভানি-এমবাপ্পেদের সামনে রিয়াল দাঁড়াতে পারবে বলে মনে হয় না!

আরও পড়ুনঃ   নেইমারের পিএসজিকে মাটিতে নামাল বায়ার্ন

ওদিকে সপ্তমবারের মতো শেষ চারে চলে গেছে সেভিয়া। আর প্রথম লেগে এই মৌসুমের প্রথম হারের শিকার হওয়ার ধাক্কা সামলে নিতে নগর প্রতিদ্বন্দ্বী এসপানিওলের বিপক্ষে মাঠে নামবে বার্সা। প্রথম লেগে ০-১ গোলে পিছিয়ে আছে কাপের বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। খেলা বাংলাদেশ সময় রাত আড়াইটায় শুরু।

Comments

comments

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

seventeen − eleven =