পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে লক্ষ্য লক্ষ্য প্রবাসী। যাদের রেমিটেন্সের টাকায় আমাদের দেশের অর্থনীতিকে রাখছে সচল!

পৃথিবীর অনেক দেশের প্রবাসীরা ঈদের দিনেও কাজ করে থাকেন, এইটাই বাস্তবতা। বিশেষ করে ইউরোপের অনেক দেশেই ঈদের ছুটি বলে কিছু নেই। একজন প্রবাসী হিসেবেই নিজের এবং প্রবাসের কাছের ও পাশের মানুষ গুলোর কথাই বলছি!

‘আমাদের মত হতভাগা প্রবাসীদের ঈদ বলতে কিছু নেই। তারপরেও দেশের মানুষের একটু খুশি দেখতে এই ত্যাগ আমাদের। গত শুক্রবার প্রবাসের মাঝে আরেকটি ঈদ করলাম বুকে চরম ব্যথা নিয়ে। যে ব্যথা পরিবার-পরিজন থেকে দূরে থাকার ব্যথা। অনেক কষ্ট হলো ঈদের দিন আমার। কিন্তু কাউকে দেখাবার নয়। নিজের অজান্তেই কেন জানি চোখ থেকে অনেক পানি বের হয়ে গেছে। এখানে আমি একা একা, কেউ নেই দেখার আমায়। ঈদের নামাজ শেষে কাজের উদ্দেশ্য আবারো ছুটে চলা। প্রতি দিনের মতই ঈদের দিনও ছিল সেই কর্ম ব্যস্ততা। দেশের কথা ভাবলেই শুরু হয় অজানা ব্যথা।’

‘আমরা যারা প্রবাসী, সকলেরই হৃদয়ে যতদিন স্পন্দন থাকবে ততদিন পর্যন্ত পরিবারের একটু সুখের জন্য আমাদের কাজ করে যেতে হবে। কথা গুলো একান্তই আমার কেউ কষ্ট পেয়ে থাকলে ক্ষমা করে দিবেন। প্রবাস জীবন আর ভালো লাগেনা। তারপরও শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করা পর্যন্ত এই অবিরাম যন্ত্র মানবের মতই প্রবাসে কাজ করে যেতে হবে এটাই বাস্তবতা। ইতি টানার আগে সবাইকে আবারও ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়ে বিদায় নিচ্ছি।’

লেখক- পর্তুগাল প্রবাসী,
রনি মোহাম্মদ

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   আইফেল টাওয়ারের পাশে বাঘ!

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

one × five =