সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকদের সঙ্গে চলতি সপ্তাহেই বসছে সরকার। তাদের দাবি যৌক্তিক হলে তা পূরণে পদক্ষেপ নেয়া হবে। আজ মঙ্গলবার সচিবালয়ে নিজ কার্যালয়ে এ তথ্য জানান প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান সিজার।
গত ২৩শে ডিসেম্বর থেকে বেতন বৈষম্য নিরসনের দাবিতে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে আমরণ অনশন কর্মসূচি শুরু করেছিল শিক্ষকরা। পরে অনশনের তৃতীয় দিনে মন্ত্রীর আশ্বাসে কর্মসূচি স্থগিত করে তারা।
মন্ত্রী বলেন, তারা একটা গ্যাপের কথা বলছেন, সেই গ্যাপটা থাকার কথা নয়। গ্যাপ যদি থাকে, তা দূর করা সম্ভব কিনা- সেটা আলোচনা করেই ঠিক করা হবে।

আমরা ডিজিকে (প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর) আলোচনা শুরুর জন্য বলেছি। প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী আরো বলেন, আমরা চাইলেই তো কিছু করতে পারব না। শিক্ষকদের এক গ্রেড উপরে উঠিয়ে দিতে পারব না। অর্থ মন্ত্রণালয়, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় আছে। এ দুটো মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন লাগবে। তিনি বলেন, শিক্ষকদের দাবির মধ্যে যেটুকু রিজনেবল সরকার নিশ্চয়ই সেটুকু করবে। শিক্ষকদের বলেছি আলোচনার জন্য ৫-৭ সদস্যের প্রতিনিধি ঠিক করতে। এরপর জনপ্রশাসন ও অর্থমন্ত্রণালয়ের সঙ্গে আলোচনা শুরু করতে পারি।

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   কেন্দ্রীয় ১৪ দলের সভা আগামী সোমবার

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

16 − 8 =