কথায় বলে ভেবেচিন্তে প্রেম করতে নেই। কিন্তু দিনকাল যা এসেছে, তাতে চিন্তাভাবনা না করে প্রেমে পড়লেই বিপদ।

কখন কী ঘটে যায়, কেই বা বলতে পারে? তাই প্রেম প্রথম হোক বা দ্বিতীয় কিংবা হোক তৃতীয়, সাতটি প্রশ্ন অবশ্যই নিজেকে করবেন।

১) আপনিই কি সত্যিই মানুষটাকে পছন্দ করেন? নাকি কেবল সিঙ্গল থাকাটা একঘেয়ে হয়ে গিয়েছে বলে সঙ্গীর খোঁজ করছেন। আগে নিজের চাহিদাটা ভাল করে বুঝে নেবেন, তারপরই নতুন সম্পর্কের দিকে পা বাড়াবেন।

২) যাকে মন দিচ্ছেন তার সম্পর্কে সমস্ত কিছু জানেন তো?  কারও সম্পর্কে পুরোটা না জেনে তাকে মন দেবেন না। এতে ভবিষ্যতে পস্তাতে হতে পারে। তাই আগে থেকেই সাবধান হওয়াটা বাঞ্ছনীয়।

৩) ভবিষ্যতের জীবনসঙ্গী হিসেবে মানুষটাকে ভাবতে পারেন তো? হ্যাঁ, এখন সম্পর্ক অতটা ভবিষ্যত চিন্তা করে হয় না। তবে পছন্দের মানুষটার সঙ্গে যদি জীবন কাটানো যায় তার থেকে ভাল আর কিছুই হতে পারে না। তাই ভবিষ্যতের কথাটা একটু হলেও ভাববেন।

৪) বর্তমানকে দেখলে কি আপনার অতীতের কথা মনে পড়ে? যদি উত্তর হ্যাঁ হয় তাহলে অবিলম্বে সেই সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে আসুন। কারণ অতীতে যে ভুল একবার করে ফেলেছেন তা আবার না করাই বুদ্ধিমানের কাজ।

৫) আপনি কি সত্যিই খুশি? কিসে আপনার আনন্দ, শান্তি সেটা আপনি ছাড়া আর কেউ ভাল বুঝতে পারবে না। তাই নিজেকেই নিজে এই প্রশ্নটি করে দেখুন। জানতে চান কেন আপনি এই সম্পর্ক গড়তে চান। যদি নিশ্চিত উত্তর পান তাহলেই এগিয়ে যান।

৬) সম্পর্কের খারাপ দিকটা সামলাতে পারবেন তো? প্রেম মানেই কেবল পেটের মধ্যে প্রজাপতি ওড়ার অনুভূতি নয়। সব সম্পর্কেরই কিছু ভাল দিক থাকে, আর কিছু মন্দ দিক থাকে। সেই মন্দ দিকটাও আগে থেকে আঁচ করে নেবেন। ভেবে দেখবেন, তা সামলানোর ক্ষমতা আপনার রয়েছে কিনা। এরপরই সিদ্ধান্ত নেবেন।

৭) সঙ্গীরও কি আপনার প্রতি সমান আনুগত্য রয়েছে? ভালবাসা ভারসাম্যের খেলা। দুই দিকে ওজন সমান হতে হয়। একদিকে বেশি, অন্যদিকে কম হলেই বিপদ। তাই ভাল করে যাচাই করে নেবেন যাঁকে সর্বস্ব দিয়ে ভালবাসছেন তারও আপনার প্রতি ততটাই আনুগত্য আছে কি না।

মনে রাখবেন, ব্যর্থ সম্পর্ক শুধু দুঃখই দেয়। তাই প্রেমসাগরে ডুব দেওয়ার আগে ভাল করে গভীরতা মেপে নেবেন। তারপরই  চূড়ান্ত সিদ্ধান্তটি নেবেন।

Comments

comments

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

15 − 13 =