নারায়ণগঞ্জ সদরের ফতুল্লায় মাদক ব্যবসার বিরোধে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আধা ঘণ্টায় অন্তত ১৮ বাড়ি ঘর ভাঙচুর করা হয়েছে। এতে অন্তত ৬ জন আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে আরিফ ও স্বাধীনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শনিবার রাত ৯টা থেকে সাড়ে ৯ টা পর্যন্ত ফতুল্লার নন্দলালপুর রেললাইন এলাকায় এঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, নন্দলালপুর রেললাইন এলাকায় স্বাধীন ও মুন্না গ্রুপের মধ্যে মাদক ব্যবসার আধিপত্য বিস্তার নিয়ে কয়েক ধরে বিরোধ চলে আসছে। এনিয়ে শনিবার রাতে দু’গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে স্বাধীন গ্রুপের স্বাধীন, আরিফ, রবিনসহ অন্তত ৬ জন ছুরিকাঘাতে আহত হয়।

এরপর স্বাধীন গ্রুপের লোকজন ওই এলাকার প্রায় ১৮টি বাড়ি ঘরের দরজা জানালা ও বাড়ির গেইট কুপিয়ে ভাংচুর করে। একই সময় সড়কে একটি চলন্ত ট্রাকের সামনের গ্লাস ভাংচুর করে চালক ফয়সালের কাছ থেকে ২০ হাজার টাকা ও একটি মোবাইল ছিনিয়ে নেয়। ওইসময় স্বাধীন গ্রুপের ধাওয়ায় মুন্না গ্রুপ পালিয়ে যায়। সন্ত্রাসীদের এ তান্ডবে এলাকায় আতংক ছড়িয়ে পড়ে। পরে পুলিশ গিয়ে ধাওয়া করলে স্বাধীন গ্রুপের সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়।

ফতুল্লা মডেল থানার ওসি কামাল উদ্দিন জানান, পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। দুই গ্রুপের সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। আর ক্ষতিগ্রস্তরা মামলা করলে মামলা নেয়া হবে। আর নয়তো পুলিশ বাদী হয়ে মামলা করবে।

Comments

comments

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

5 × 3 =