ভাইরাল ফ্লু এখন উন্নত দেশগুলোয়ও প্রাণঘাতী একটি রোগ। ব্রিটেনে, বিশেষ করে বয়স্ক এবং শিশুদের ওপর এর হুমকি কমাতে বিনাপয়সায় টিকা দেওয়ার ব্যবস্থা রয়েছে। এর ওপর ব্রিটেনের নটিংহ্যাম বিশ্ববিদ্যালয়ের এক গবেষণার ফলে বলা হচ্ছে, ফ্লুয়ের টিকা কতটা কাজ করবে, তা অনেকটাই নির্ভর করে টিকা নেওয়ার আগে ও পরে মানুষটির মনের অবস্থার ওপর। এ ক্ষেত্রে মেজাজ ফুরফুরে থাকলে টিকা বেশি কার্যকরী হয়।গবেষকরা ৬৫ থেকে ৮৫ বছর বয়স্ক ১৩৮ জনের ওপর জরিপ চালান। টিকা নেওয়ার আগের দুসপ্তাহ এবং পরের চার সপ্তাহ তাদের মনের অবস্থার ওপর নজর রাখা হয়। দেখা গেছে, যারা এ ছয় সপ্তাহ ধরে ভালো মেজাজে ছিলেন, তাদের রক্তে টিকার প্রতিরোধের ক্ষমতা চার মাস পরেও বেশ জোরালো ছিল। এটা কি নেহাতই কাকতালীয়, নাকি সত্যিই মেজাজের সঙ্গে রোগপ্রতিরোধের ক্ষমতা আছেÑ তা নিয়ে গবেষকরা এখনো নিশ্চিত হতে পারছেন না।

এর আগে ভিন্ন কিছু গবেষণায় টিকার কার্যকারিতার সঙ্গে অন্য কিছু বিষয়েরও সম্ভাব্য যোগসূত্রের কথা বলা হয়েছে। যেমন একটি গবেষণায় বলা হয়েছে, সকালের দিকে টিকা নিলে তা বেশি কার্যকরী হতে পারে।যুক্তরাষ্ট্রের ইয়েল বিশ্ববিদ্যালয়ের এক গবেষণায় বলা হয়েছে, টিকার কার্যকারিতার মাত্রা নির্ভর করে জিনগত গঠনের ওপর। নটিংহ্যাম বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা পেয়েছেন, ব্যক্তির পুষ্টি, শরীরচর্চা বা ঘুমের সঙ্গে টিকার কার্যকারিতার কোনো সম্পর্ক নেই। সূত্র : বিবিসি

Comments

comments

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

four × three =