যুক্তরাজ্যে প্রতি চারজনের মধ্যে মাত্র একজন ফেসবুক-টুইটারের মতো সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের ওপর আস্থা রাখেন; তার মানে শতকরা ৭৫ ভাগ ব্রিটিশেরই আস্থা নেই এতে। তাঁরা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের ওপর কঠোর নিয়ন্ত্রণ দেখতে চান।

এডেলম্যান ট্রাস্ট ব্যারোমিটারের বার্ষিক জরিপে এ কথা বলা হয়েছে। বিশ্বব্যাপী ব্যবসা, সরকার, বেসরকারি সংস্থা ও গণমাধ্যমের প্রতি মানুষের বিশ্বাস কতটুকু, তা নিয়ে জরিপ চালিয়ে থাকে এডেলম্যান ট্রাস্ট ব্যারোমিটার।

সংস্থাটির জরিপে দেখা গেছে, দেশটি দুই-তৃতীয়াংশ নাগরিক মনে করেন, ফেসবুক টুইটারের মতো প্ল্যাটফর্মগুলো জঙ্গিবাদসহ অনৈতিক ও অবৈধ কর্মকাণ্ড প্রতিরোধে যথেষ্ট ব্যবস্থা নিচ্ছে না।
তবে যুক্তরাজ্যের জনগণের মধ্যে প্রচলিত সাংবাদিকতার প্রতি বিশ্বাস গত বছরে উল্লেখযোগ্যভাবে বেড়েছে। এডেলম্যান বলছে, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম মাধ্যমগুলোর পদক্ষেপ নেওয়ার সময় এসেছে। বিপণন ও জনসংযোগ প্রতিষ্ঠান এডেলম্যান যুক্তরাজ্যের প্রধান নির্বাহী এড উইলিয়ামস বলেন, ‘অনলাইনে নিরাপত্তা-সংশ্লিষ্ট মূল ইস্যুগুলোর বিষয়ে জনগণ পদক্ষেপ চায়। এসব বিষয়ে পদক্ষেপ না নিলে মানুষের মধ্যে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের প্রতি আস্থা আরও কমবে।’

এডেলম্যান বলছে, যুক্তরাজ্যের অর্ধেকের বেশি নাগরিক ভুয়া খবরের বিষয়ে চিন্তিত। ৬৪ শতাংশ মানুষ বলেছে, তারা ভুয়া খবর ও প্রকৃত সাংবাদিকতার মধ্যে পার্থক্য করতে পারে না।

সম্প্রতি ফেসবুক তাদের প্ল্যাটফর্মে ভুয়া খবর প্রতিরোধের ঘোষণা দিয়ে বলেছে, খবরের কোন কোন সূত্রকে ব্যবহারকারীরা বিশ্বাসযোগ্য বলে মনে করেন, সে বিষয়ে জরিপ চালানোর পরিকল্পনা করেছে ফেসবুক এবং জরিপের মাধ্যমে খবরের ভুয়া উৎসকে শনাক্ত করে তা বন্ধ করবে তারা। ফেসবুকের এ ঘোষণার মধ্যে এডেলম্যান তাদের জরিপের ফল ঘোষণা করল।

এডেলম্যানের জরিপে দেখা গেছে, ৬৩ শতাংশ মানুষ মনে করেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোর মধ্যে স্বচ্ছতার অভাব রয়েছে। ৬২ শতাংশ মনে করেন, এসব কোম্পানি ব্যবহারকারীদের অজ্ঞাতে তাদের তথ্য বিক্রি করছে।

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   আগামীকাল বিশ্ব বেতার দিবস

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

16 − fifteen =