আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা (আইওএম) জানিয়েছে, কক্সবাজারে বর্তমানে মোট আট লাখ ১৭ হাজার রোহিঙ্গা বসবাস করছে।

আইওএমের এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘এ বছরের ২৫ আগস্ট মিয়ানমারে সহিংসতা শুরুর পর থেকে এখন পর্যন্ত ৮ লাখের বেশি রোহিঙ্গা কক্সবাজারে আশ্রয় নিয়েছে।

এছাড়াও নতুন করে আসা রোহিঙ্গাদের অধিকাংশই গাদাগাদি করে অস্থায়ী আশ্রয় শিবিরগুলোতে অবস্থান করছে। স্থানীয় বাসিন্দাদের সঙ্গেও থাকছে রোহিঙ্গারা।

কুতুপালংয়ে ক্রমবর্ধমানভাবে গড়ে ওঠা শিবিরে সর্বোতভাবে আবাসনের প্রয়োজন মেটানোর সমীক্ষা এবং অন্যান্য সমস্যা নিয়ে পুরুষ ও নারী নেতৃবৃন্দের সঙ্গে বৈঠক করেছে আইওএম। এই বৈঠকের পর এখন থেকে এখানে নিয়মিতভাবে কমিউনিটি মিটিং হবে।

আইওএম এবং বেসরকারি সংস্থা আরইএসিএই সেখানকার লোকদের অবস্থা সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহে কাজ করে যাচ্ছে। এটি মানবিক সহায়তাকারীদের সিদ্ধান্ত ও পরিকল্পনা গ্রহণের সক্ষমতা বৃদ্ধিতে সহায়ক হবে।

আশ্রয় শিবিরগুলোতে অবস্থানরত রোহিঙ্গাদের মৌলিক চাহিদা মেটাতে আইওএম ও অংশীদাররা দুই মাসের বেশি সময় ধরে কাজ করে যাচ্ছে।

আইওএম ৮০ হাজার গৃহনির্মাণ সামগ্রী বিতরণ করেছে। এগুলো দিয়ে প্রায় ৩ লাখ ৯৫ হাজার পরিবার তাদের আশ্রয় নির্মাণ করেছে। এতে করে অনুপ্রবেশকারীরা প্রবল বৃষ্টিপাত ও কঠোর রোদ থেকে নিজেদের রক্ষার পাশাপাশি ঘুমানোর জায়গা পেয়েছে।

Comments

comments

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

1 × 4 =