শেখ নোমান:

রাজধানীর বাড্ডাতে বাবা-মেয়ে খুনের ঘটনায় সাবলেট থাকা দম্পতিকে খুলনা থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। নিহতের স্ত্রী আরজিনা বেগমের তথ্যের ভিত্তিতে শাহিন ও তার স্ত্রী মাসুমা বেগমকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

পরকীয়ার সুত্র ধরে এ হত্যাকাণ্ড ঘটেছে বলে জানায় ঢাকা মহানগর পুলিশের বাড্ডা জোনের জ্যেষ্ঠ সহকারী কমিশনার আশরাফুল কবির।

তিনি জানান, ঘটনাস্থলে পৌঁছার পর সেখানে সাবলেট থাকা দম্পতিদের খুঁজে পাওয়া যায়নি।  লাশ উদ্ধারের পরপরই পুলিশ আরজিনাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে আসে। সেখানে আরজিনা জানায়, আগে তারা যে বাসায় ভাড়া থাকত সে বাসাতেই শাহিন ভাড়া থাকত। তখন তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক তৈরি হয় এবং চার মাস আগে বাসা বদলের সময় সে কৌশল করে শাহিনদের সাবলেট নিয়ে আসে।

ময়নাতদন্তকারি চিকিৎসকের ধারণা, ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাতের ফলে জামিলের মৃত্যু হয়েছে এবং নুসরাতকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, বাড্ডার ময়নারবাগ কবরস্থানের পাশে ‘পাঠানবাড়ি’ নামক একটি বাসায় স্ত্রী ও দুই সন্তানকে নিয়ে ভাড়া থাকতেন নিহত গাড়িচালক জামিল শেখ। গতকাল বৃহস্পতিবার (০২ নভেম্বর) ভোরে ওই বাসা থেকে জামিল শেখ(৩৮) ও তার নয় বছর বয়সী মেয়ে নুসরাতের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় নিহতের ভাই শামিম শেখ আরজিনা বেগম ও শাহিনকে আসামি করে বাদ্দা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

Comments

comments

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

19 + ten =