সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদকে সন্ত্রাসী ( টেরোরিস্ট) আখ্যায়িত করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তায়্যিপ এরদোগান। তিনি বলেছেন, বাশার আল আসাদকে ক্ষমতা থেকে বরখাস্ত না করে সিরিয়া সঙ্কটের কোনো রাজনৈতিক সমাধান আসবে না। এরদোগান এ কথা বলেছেন বুধবার। এ খবর দিয়েছে পাকিস্তানের অনলাইন ট্রিবিউন। তিউনিশিয়ার প্রেসিডেন্ট বেজি কাইদ এসেবসির সঙ্গে সাক্ষাতের পর এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি। এতে এরদোগান বলেন, বাশার আল আসাদ একজন সন্ত্রাসী।

আমি শুধু বলতে চাই তিনি দায়িত্বে থাকতে পারেন না। যদি আমরা তাকে ক্ষমতায় রেখে সমাধান খুঁজি তাহলে তা হবে সিরিয়ায় নিহতদের প্রতি অবিচার। উল্লেখ্য, সিরিয়া যুদ্ধে আগাগোড়াই বিরোধিতা করে এসেছে তুরস্ক। এখন এই যুদ্ধ সপ্তম বছরে। বাশার আল আসাদের বিরেধীদের সমর্থন দিয়ে তাকে ক্ষমতাচ্যুত করার চেষ্টা করছে তুরস্কে। তারা তুরস্কের প্রেসিডেন্টকে যুদ্ধাপরাধী হিসেবে অভিযুক্ত করছে। এখন সিরিয়া যুদ্ধ অবসানে যে প্রচেষ্টা চলছে তাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় রয়েছে তুরস্ক। এ প্রচেষ্টায় অন্যান্য অংশীদার আসাদের প্রধান মিত্র দেশ রাশিয়া ও ইরান। কয়েকদিন আগে যুদ্ধ বন্ধে লিপ্ত দেশগুলো জানুয়ারির শেষের দিকে রাশিয়ার কৃষ্ণ সাগরের তীরের অবকাশ কেন্দ্র সোশিতে শান্তি প্রক্রিয়া নিয়ে একটি সম্মেলনে বসতে সম্মত হয়েছে। এমন ঘোষণা দেয়ার দু’চারদিন পরেই এরদোগান এ মন্তব্য করলেন। এর আগে সোশিতে একই রকম সম্মেলন হওয়ার কথা ছিল নভেম্বরে। কিন্তু সংশ্লিষ্ট পক্ষগুলোর মধ্যে সমঝোতায় পৌঁছতে ব্যর্থ হওয়ায় সে প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়।

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   আল্লাহ চাহেতো বোসনিয়াকে রক্ষা করবো: এরদোগান

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

two × three =