ফেসবুক প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জুকারবার্গের বোন রান্ডি জুকারবার্গ বিমানের মধ্যে যৌন হয়রানির শিকার হয়েছেন। এই কাজের সুযোগবিমান কর্মীরাই নাকি অভিযুক্তকে করে দেন বলে অভিযোগ করেছেন তিনি। সংশ্লিষ্ট বিমান সংস্থা আলাস্কা এয়ারলাইন্স জানিয়েছে, বিষয়টির তদন্ত করছে তারা।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম জানিয়েছে, মার্ক জাকারবার্গের বোন রান্ডি জুকারবার্গ সোশ্যাল মিডিয়ায় জানিয়েছেন গোটা ঘটনা। আমেরিকার লস অ্যাঞ্জেলস থেকে মেক্সিকোর মাজাটলানে যাচ্ছিলেন তিনি। তার অভিযোগ, প্রথম শ্রেণিতে তার পাশের যাত্রী টানা নেশা করতে থাকেন, সঙ্গে চলতে থাকে অশ্লীল মন্তব্য।

এমনকি যে সহকর্মীর সঙ্গে জুকারবার্গের বোন সফর করছিলেন, তার প্রতি তার দুর্বলতা আছে কিনা জানতে চান তিনি। পাশাপাশি অন্য মহিলা সহযাত্রীদের শরীর নিয়ে বারবার আপত্তিকর মন্তব্য করেন।

এ নিয়ে বিমান কর্মীদের কাছে অভিযোগ করেন জুকারবার্গের বোন। কিন্তু তারা বিষয়টি হালকা করে দেন ওই ব্যক্তি এই রুটে তাদের নিয়মিত যাত্রী বলে। এছাড়া রান্ডি জুকারবার্গকে অন্য সিটে উঠে যাওয়ার পরামর্শ দেন তাঁরা। তাই করছিলেন রান্ডি জুকারবার্গ। কিন্তু তখনই তার মনে হয়, তিনি কেন সরবেন! তিনিই তো নিগ্রহের শিকার।

বিমান সংস্থা জানিয়েছে, জুকারবার্গের বোনের সঙ্গে এ ব্যাপারে যোগাযোগ করেছেন তারা। তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত অভিযুক্তের ওই বিমানে সফর বন্ধ রাখা হয়েছে।

বিমান সংস্থার পক্ষ থেকে বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে নেয়ার জন্য রান্ডি জাকারবার্গ তাদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   সিরিয়ায় অবিলম্বে উত্তেজনা প্রশমনের আহ্বান জাতিসংঘ মহাসচিবের

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

eight + 12 =