নবনিযুক্ত আইজিপি ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বলেছেন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে যেকোন ধরনের বিশৃংখলার বিরুদ্ধে এবং জানমালের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পুলিশ সর্বোচ্চ কঠোর অবস্থানে থাকবে । তিনি বলেন, ‘নির্বাচন পরিচালনা করা নির্বাচন কমিশনের কাজ। এ ব্যাপারে পুলিশ তাদের সহযোগিতা করবে। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে যে কোন ধরনের সহিংসতার বিরুদ্ধে আইনের আওতায় কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণের পাশাপাশি জনগণের জানমালের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পুরিশ পেশাদারিত্বের সঙ্গে দায়িত্ব পালন করবে।’
দায়িত্ব গ্রহণের পর বৃহস্পতিবার পুলিশ সদর দপ্তরে মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত প্রথম প্রেস ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।
অপর এক পশ্নের জবাবে পুলিশ প্রধান বলেন, আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায়ের ঘোষণাকে সামনে রেখে যে কোন ধরনের সহিংসতা মোকাবেলায় পুলিশ তাদের ওপর অর্পিত দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করবে।
‘সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের মত’ মাদক নির্মূলেও ‘জিরো টলারেন্স’ নীতি গ্রহণ করার কথা উল্লেখ করে আইজিপি বলেন, ‘মাদক নির্মূলে পুলিশের নীতি হবে ‘জিরো টলারেন্স’। মাদকের যতদিন চাহিদা থাকবে, ততদিন এর যোগান থাকবে। এটি নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে। সবাইকে নিয়ে কাজ করলে মাদক নির্মূল করা যাবে।’
তিনি বলেন, সীমাবদ্ধতা থাকা সত্ত্বেও পুলিশ জনগণের সেবা দিয়ে থাকে। পুলিশের কোনো কর্মঘণ্টা নেই। তিনি বলেন, পুলিশের অনেক অর্জন আছে কিন্তু কখনও কখনও কিছু পুলিশ সদস্যের অপেশাসুলভ আচরণে বিব্রত হতে হয়, মাদকের কারবারেও পুলিশের জড়ানোর অভিযোগ কখনও কখনও এসেছে।
পুলিশের কোনো সদস্যের অপরাধের দায় পুলিশ বাহিনী নেবে না উল্লেখ করে তিনি বলেন, কোনো ব্যক্তি অপরাধ করলে তাকে অপরাধী হিসেবে দেখে প্রচলিত নিয়ম নীতি অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
জাবেদ পাটোয়ারী গতকাল বুধবার বিদায়ী আইজিপি এ কে এম শহীদুল হকের স্থলাভিষিক্ত হয়েছেন।

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   ৫৯ কনটেইনার পণ্য ধ্বংস মঙ্গলবার থেকে

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

sixteen − 7 =