বিশ্বজুড়ে আধুনিক দাসত্বের শিকার প্রায় ৪ কোটি ৩০ লাখ মানুষ। তাদের মধ্যে এক চতুর্থাংশই শিশু।

মঙ্গলবার জাতিসংঘের আর্ন্তজাতিক শ্রম সংস্থা (আইএলও) এবং ওয়াক ফ্রি ফাউন্ডেশনের যৌথভাবে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, বিশ্বজুড়ে আড়াই কোটি মানুষ জবরদস্তিমূলক শ্রমে নিয়োজিত এবং দেড় কোটি মানুষ শিকার হয়েছেন বাধ্যতামূলক বিয়ের। এই দুই প্রকার দাসত্বের শিকার হয়েছেন মোট এক কোটি শিশু।

ওই রিপোর্ট অনুযায়ী বিশ্বজুড়ে জবরদস্তিমূলক শ্রমে নিয়োজিত আড়াই কোটি মানুষের মধ্যে এক কোটি ৬০ লাখ ব্যক্তিমালিকানার দাসত্বের শিকার, ৪৮ লাখ যৌন শোষণ আর ৪১ লাখ মানুষ রাষ্ট্রীয় আনুকূল্যে জবরদস্তিমূলক শ্রমে নিয়োজিত।

রাষ্ট্রীয় আনুকূল্যে জবরদস্তিমূলক শ্রমের মধ্যে রয়েছে বাধ্যতামূলকভাবে সেনাবাহিনীতে নিয়োগ এবং কৃষিক্ষেত্রে বাধ্যতামূলক কাজ।

ওয়াক ফ্রি ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক ফিওনা ডেভিড গার্ডিয়ানকে বলেন, ‘নতুন এই পরিসংখ্যান নিছক দাসত্বের চিত্রই শুধু তুলে ধরে না।

বরং বিশ্বজুড়ে ৪ কোটি মানুষ দাসত্বের শিকার হওয়াকে কোনোভাবেই মেনে নেয়া যায় না।’

গবেষণায় দেখা গেছে, অনেক জবরদস্তিমূলক শ্রমে নিয়োজিত শ্রমিক সহিংসতার শিকার হয়েছেন। তাদের বেশিরভাগই ঋণের জালে আবদ্ধ অথবা মজুরি থেকে বঞ্চিত।

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   ভারতীয় সেনাবাহিনীতে ৩০ বছর, এখন ‘অবৈধ বাংলাদেশি’

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

eight + 14 =