ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতির সঙ্গে জড়িত থাকার দায়ে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির এক সহ সম্পাদকসহ ১৫ শিক্ষার্থীকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সভায় তাদের বহিষ্কারাদেশ চূড়ান্ত করা হয়। বিষয়টি মানবজমিনকে নিশ্চিত করেছেন বিশ্ববিদ্যালয় ভিসি অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান। তিনি বলেন, শৃঙ্খলা কমিটি (ডিবি) এর সুপারিশের ভিত্তিতে তাদের বহিষ্কার করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতি করে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়া ও ভর্তি করিয়ে দেয়ার সুনির্দিষ্ট অভিযোগ ছিল।
এর আগে গত ৪ঠা জানুয়ারি শৃঙ্খলা কমিটির এক সভা থেকে অভিযুক্ত ১৫ জনের ছাত্রত্ব বাতিল চেয়ে সুপারিশ করা হয়।

তারই ধারাবাহিকতায় বিষয়টি চূড়ান্ত করে সিন্ডিকেট। জালিয়াতি করে শিক্ষার্থী ভর্তি করিয়ে দেয়ার সঙ্গে জড়িত থাকায় বহিষ্কৃতরা হলেন- ভুগোল ও পরিবেশ বিভাগের তৃতীয় বর্ষের নাভিদ আনজুম তনয়, পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র মহিউদ্দিন রানা, ফলিত রসায়ন ও কেমিকৌশল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের আবদুল্লাহ আল মামুন। এদের মধ্যে রানা কেন্দ্রিয় ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক এবং আব্দুল্লাহ আল মামুন অমর একুশে হল ছাত্রলীগের নাট্য ও বিতর্ক সম্পাদক।
এছাড়া বহিষ্কৃত অন্যরা হলেন- ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি হওয়া রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের নাহিদ ইফতেখার, বিশ্ব ধর্ম ও সংস্কৃতি বিভাগের মো. আজিজুল হাকিম, মনোবিজ্ঞান বিভাগের মো. বায়েজিদ, সংস্কৃত বিভাগের প্রসেনজিৎ দাশ, স্বাস্থ্য অর্থনীতি বিভাগের ফারদিন আহমেদ সাব্বির, অর্থনীতি বিভাগের মো. তানভীর আহমেদ মল্লিক ও রিফাত হোসাইন, ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের রাফসান করিম, বাংলা বিভাগের আখিনুর রহমান অনিক, ইতিহাস বিভাগের টিএম তানভীর হাসনাইন, শিক্ষা ও গবেষণা বিভাগের মুন্সী সুজাউর রহমান এবং পালি ও বুদ্ধিস্ট স্টাডিজ বিভাগের নাজমুল হাসান নাঈম।

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   বিএনপির বিজয় র‌্যালিতে মানুষের ঢল, নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন দিন : মির্জা ফখরুল

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

2 × four =