৩০ বছর ধরে ভারতীয় সেনাবাহিনীতে থাকার পর অবসরে যাওয়া মো. আজমল হক অবৈধ বাংলাদেশি অভিবাসী বলে অভিযোগ উঠেছে। এ অভিযোগ করেছে দেশটির আসাম রাজ্য পুলিশ। সেনাবাহিনীর জুনিয়র কমিশন অফিসার (জেসিও) হিসেবে গত বছর অবসরে যাওয়া আজমল হকের বিরুদ্ধে ১৩ অক্টোবর ফরেনার ট্রাইব্যুনালে শুনানি হওয়ার কথা রয়েছে বলে এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে।

আসাম পুলিশের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে সাবেক এই কর্মকর্তাকে নোটিশও পাঠানো হয়েছে। আসামের গুয়াহাটি থেকে ৭০ কিলোমিটার দূরের ছায়া গঞ্জে থাকেন সাবেক এই সেনা কর্মকর্তা। তিনি বলেন, ‘আমি খুবই শোকাহত। এটা শুনে অনেক কেঁদেছি। আমার মন ভেঙে গেছে। ৩০ বছর ভারতীয় সেনাবাহিনীতে কাজ করার পর আমাকে এমন অপমানের কথা শুনতে হলো।’

আজমল হকের প্রশ্ন, ‘আমি যদি বাংলাদেশি  হই; তবে কীভাবে ৩০ বছর সেনাবাহিনীতে কাজ করেছি।’

এর আগে ২০১২ সালেও আজমলের হকের স্ত্রী মমতাজ বেগমের নাগরিকত্ব নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করে নোটিশ পাঠানো হয়েছিল। ওই সময় তিনি প্রামাণ্য নথিপত্র জমা দিয়েছিলেন ট্রাইব্যুনাল আদালতে।

আজমল হক জুনিয়র কমিশন অফিসার অফিসার হিসেবে ২০০৩ সালে ভারতের সেনাবাহিনীতে যোগ দেন। তিনি পেনশন পাওয়ার কথা জানিয়ে বলেন, আমার মা ১৯৫১ সালে ভারতীয় হিসেবে নথিভুক্ত হয়।

সেনাবাহিনীতে কারও চাকরি হলে পুলিশ ভেরিফিকেশন বাধ্যতামূলক।। ছবি: সংগৃহীত

ইতিমধ্যেই বিষয়টি জানিয়ে আজমল হক ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, রাষ্ট্রপতি এবং কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে আবেদন করেছেন।

আজমল হকের আইনজীবী আমান ওয়াদুদ বলেন, ‘তদন্তকারী সংস্থার লক্ষ্য হলো ভিক্ষুক, দৈনিক মজুরিতে কাজ করা লোক এবং রিকশাওয়ালারা।’

এদিক আজমল হকের অবৈধ অভিবাসীর ব্যাপারটি নিয়ে এরই মধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তীব্র সমালোচনার ঝড় উঠেছে। নানান মন্তব্য উঠে আসছে। কেউ কেউ প্রশ্ন করছেন, একজন ব্যক্তি ৩০ বছর ধরে সেনাবাহিনীতে কাজ করে গেলেন, অবসরও নিলেন। তা হলে এত দিন পর নাগরিকত্ব নিয়ে প্রশ্ন উঠছে কেন?

একজন টুইটারে লেখেন, ‘আসাম পুলিশের এ ঘটনায় আমার পাচ্ছে। এটি অত্যন্ত লজ্জাজনক কাজ। কীভাবে তারা একজন দেশপ্রেমিক সৈনিক এবং ভারতীয় সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত একজন জুনিয়র কমিশন অফিসারকে অপমান করছে।’

ব্যাপারটি নিয়ে ব্যাপক সমালোচনার পরে আসামের পুলিশ প্রধান মুকেশ সাহায় বলেন, এ ব্যাপারটি নিয়ে একটি অভ্যন্তরীণ তদন্তের আদেশ তিনি দিয়েছেন। আমি ইতিমধ্যেই পুলিশ সুপারকে (এসপি) বিষয় নিয়ে জানতে চেয়েছি।’

Comments

comments

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

eleven + eleven =