পাকিস্তানের কাছে গোপন তথ্য ফাঁস করে দেয়ার অভিযোগে সেনাবাহিনীর উচ্চ পর্যায়ের একজন কর্মকর্তাকে আটক করেছে ভারত। ওই কর্মকর্তা একজন লেফটেন্যান্ট কর্নেল। বলা হয়েছে, পাকিস্তান সেনাবাহিনীর গোয়েন্দা সংস্থা ইন্টারসার্ভিসেস ইন্টেলিজেন্সের (আইএসআই) ‘হানি ট্রাপে’ পা দেন ওই কর্মকর্তা। এ অভিযোগে মধ্য প্রদেশের জাবালপুরে তাকে আটক করা হয়েছে। তিনি সেখানে একটি ওয়ার্কশপে কর্মরত। ভারতীয় সেনাবাহিনীর কাউন্টার ইন্টেলিজেন্স শাখা তাকে আটক করে।

অভিযোগ করা হয়েছে, তিনি পাকিস্তানের আইএসআইয়ের কাভে ভারতীয় সেনাবাহিনীর গোপন ও অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ অনেক তথ্য পাচার করেছেন। তবে ওই কর্মকর্তার নাম প্রকাশ করা হয় নি। এ খবর দিয়েছে অনলাইন জি নিউজ। এতে বলা হয়, ওই কর্মকর্তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। বার্তা সংস্থা পিটিআইকে টেলিফোনে এলাহাবাদের প্রতিরক্ষা বিষয়ক পিআরও, উইং কমান্ডার অরবিন্দ সিনহা বলেছেন, মঙ্গলবার রাতে সেনাবাহিনীর সদর দপ্তরের একটি টিম জাবালপুর থেকে ওই কর্মকর্তাকে তুলে নিয়ে গেছে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য। তবে তিনি এ বিষয়ে বিস্তারিত জানাতে অপারগতা প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, এই মুহূর্তে আমরা এ বিষয়ে বিস্তারিত জানাতে পারছি না। তবে কি ওই কর্মকর্তা ‘হানি ট্রাপের’ শিকার হয়েছেন। এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ওই কর্মকর্তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। আটক লেফটেন্যান্ট কর্নেলকে কি আরো জিজ্ঞাসাবাদের জন্য লক্ষেèৗতে নেয়া হয়েছে নাকি জাবালপুরে রাখা হয়েছে এ বিষয়টিও জানাতে অপরাগতা প্রকাশ করেন তিনি। ওদিকে প্রভাত খবর রিপোর্ট করেছে যে, ওই কর্মকর্তারা ব্যবহৃত অফিসটি সিলগালা করে দেয়া হয়েছে। সেনাবাহিনী বেশ কিছু ডকুমেন্ট ও তার হার্ডড্রাইভ জব্দ করেছে। আটক ওই কর্মকর্তার একাউন্টে বিপুল পরিমাণ অর্থ জমা থাকার রিপোর্টও করা হয়েছে। তবে এ বিষয়ে সরকারি বা প্রাতিষ্ঠানিক কোনো নিশ্চয়তা মেলে নি। এর মাত্র পাঁচদিন আগে দিল্লি পুলিশের স্পেশাল সেন গ্রেপ্তার করেছে গ্রুপ ক্যাপ্টেন অরুণ মারওয়াকে। তার বিরুদ্ধেও একই রকম অভিযোগ। বলা হয়েছে, তিনিও পাকিস্তানের আইএসআই এবং গুপ্তচরদের কাছে তথ্য পাচার করেছেন। আইএসআইয়ের একজন এজেন্ট নারী হিসেবে তার সঙ্গে চ্যাটিং করতো।

আরও পড়ুনঃ   কেমন কেটেছে হবু রাজবধূর বড়দিন?

Comments

comments

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

fourteen + 8 =