আগামী ২৬ জানুয়ারি সাধারণতন্ত্র দিবসে নাশকতা চালানোর গোপন খবর পেয়ে ভারতজুড়ে এলার্ট জারি করা হয়েছে। ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফে এই বিশেষ এলার্ট জারি করা হয়েছে। ইতিমধ্যেই রাজধানী দিল্লির নিরাপত্তার দায়িত্বে নামানো হয়েছে আধা সামরিক বাহিনীকে। সাধারণতন্ত্র দিবসের প্রায় ১৫ দিন আগেই মঙ্গলবার থেকে দিল্লিতে সিআরপিএফ মোতায়েন শুরু হয়েছে। যে কোনও অপ্রীতিকর পরিস্থিতি মোকাবিলায় দেশটির সীমান্ত সহ গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় বিশেষ নজরদারি শুরু হয়েছে। একই সঙ্গে গোটা দিল্লিকেও নিরাপত্তার চাদরে মুড়ে ফেলা হয়েছে। চলছে জোর তল্লাশি। নিরাপত্তার দিকে নজর রেখে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের পক্ষ থেকে পাঞ্জাব, হরিয়ানা, মধ্যপ্রদেশ, উত্তরাখন্ড, রাজস্থান এবং হিমাচল প্রদেশের পুলিশ প্রধান এবং মুখ সচিবদের চিঠি লিখে সতর্ক বার্তা দেয়া হয়েছে। ড্রোন এবং আকাশপথে হামলার আশঙ্কায় সুরক্ষা ব্যবস্থাকে আরও কড়া করার ওপর জোর দেয়া হয়েছে। বিশেষ করে নজর দেয়া হয়েছে রাষ্ট্রপতি ভবনের ওপর সুরক্ষার ওপর। রাষ্ট্রপতি ভবনের ৩০০ মিটারের মধ্যে কোনও ধরনের ড্রোন, লাইট বা মাইক্রো এয়ারক্র্যাফ্ট, এসব উড়ানের ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের সতর্কবার্তায় বলা হয়েছে, আগামী ২৬ জানুয়ারি সাধারণতন্ত্র¿ দিবসে ড্রোন বা আকাশপথে হামলা হতে পারে। গোয়েন্দারা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকে যে গোপন খবর পাঠিয়েছে। তাতে বলা হয়েছে, অক্ষরধাম মন্দির এবং সাধারণতন্ত্র দিবসের অনুষ্ঠানে জঙ্গিরা হামলা চালাতে পারে। এবারই সাধারণতন্ত্র দিবসের প্যারেডে উপস্থিত থাকবেন এশিয়ান দেশের ১০ জন রাষ্ট্রপ্রধান।

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   স্বাধীনভাবে নিজস্ব ব্যবসা শুরুর অধিকার পেল সৌদি নারীরা

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

two + eight =