প্রথমবারের মতো শুক্রবারের জুমা’র নামাজে ইমামতি করলেন একজন মুসলিম নারী। তার নাম জামিতা। তার বয়স ৩৪ বছর। ভারতের ইতিহাসে নারীদের ইমামতি এটাই প্রথম। এ নিয়ে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে। তাকে প্রাণনাশের হুমকি দেয়া হয়েছে।

তবে জামিতার জোর দাবি, তিনি প্রতি শুক্রবার জুমার নামাজ পড়িয়ে যাবেন। এ খবর দিয়েছে অনলাইন জি নিউজ ও আনন্দবাজার পত্রিকা। এতে বলা হয়েছে, গত শুক্রবার কেরালার মালাপ্পুরম জেলায় একটি মসজিদে নামাজ পড়ান ‘কুরান সুন্নাহ সোসাইটি’র রাজ্য শাখার সেক্রেটারি জামিতা। উল্লেখ্য, সারা ভারতেই শুক্রবারের জুমার নামাজ পড়িয়ে থাকেন পুরুষ ইমামরা। কিন্তু এর সমালোচনা করেন জামিতা। তিনি বলেন, শরীয়তে এমন কোনো আইন নেই যে, শুধু পুরুষরাই ইমাম হতে পারবেন। তার এমন আচরণের কারণে তাকে নানাভাবে হুমকি দেয়া হয়েছে। এমন হুমকিতে তাকে ছাড়তে হয়েছে তিরুঅনন্তপুরম। এরপর তাকে আশ্রয় দিয়েছে কোরআন সুন্নাহ সোসাইটি। জামিতা বলেন ‘কোনো মহিলা নামাজ পড়াবেন এটা অনেক পুরুষই সহ্য করতে পারেন না। এ সিদ্ধান্তের জন্য অনেক প্রবীণও আমার সমালোচনা করেছেন। তাকে ফোনে প্রাণহানীর হুমকি দেয়ার পর দেয়া হয়েছে নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   এক মেয়ে এসে আমাকে বলল, আমি ইসলাম ধর্ম ছেড়ে দিয়েছি সূরা আর রাহমান এর জন্য, কারণ

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

four × two =