প্রজাতিতে সে আফ্রিকার ধূসর রঙের টিয়া। মালিকের বড় আদরের ‘বাডি।’ বুদ্ধিমান এই টিয়াই তার কাণ্ডকারখানার জন্য এখন সংবাদের শিরোনামে।

পাঁচ বছরের আদরের ‘বাডি’-র কর্মকাণ্ডের কথা জানাতে জানাতে উচ্ছ্বসিত দক্ষিণ লন্ডনের প্রিটোরিয়াস পরিবার। গৃহকত্রী কোরিয়েন জানালেন, বাড়িতে তাদের অনুপস্থিতিতে মোবাইলে আমাজনের আলেক্সা ভয়েস কন্ট্রোল সিস্টেমে নিজেকে অ্যাক্টিভেট করেছে টিয়া। তারপর অনলাইন ভয়েস-এর সাহায্যে দামি গিফ্ট বক্সের সেট অর্ডার করেছে। পুরোটাই সে করেছে তার মালিকের গলা নকল করেই।

দক্ষিণ লন্ডনের গ্রিনউইচের বাসিন্দা কোরিয়েন এবং জ্যান প্রিটোরিয়াস। জ্যান সিভিল ইঞ্জিনিয়ার। তাদের আট বছর বয়সের এক ছেলেও রয়েছে। কোরিয়েনের কথায়, বাড়িতে গিফ্ট বক্সের ডেলিভারি আসলে তিনি অবাক হয়ে যান। ১৬ ডলারের ওই গিফ্ট বক্স অর্ডার দেওয়ার জন্য স্বামী ও ছেলেকে বকাবকিও করেন।

কিন্তু পরে জানা যায়, ওই অর্ডার দিয়েছে তাদেরই পোষা টিয়া ‘বাডি।’  আলেক্সা ভয়েস সিস্টেমের সাহায্যে দূর থেকে নির্দেশ দিয়েই যে কোনও সিস্টেম ওপেন করা যায়। এর মধ্যে রয়েছে ‘ইকো স্পীকার’ আর ভয়েস রেকগনিশন সফটওয়্যার। কোরিয়েনের মতে, খাঁচার মধ্যে থেকেই কথা বলে ওই সিস্টেম অ্যাক্টিভেট করেছে ‘বাডি’ এবং অনলাইনে অর্ডার দিয়েছে।

গোটা ঘটনাটাই সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। ঘটনা দেখে রীতিমতো তাজ্জব ভিউয়ারেরা। পোষ্যদের নানা রকম কর্মকাণ্ডের ভিডিও এর আগেও সোশ্যাল মিডিয়ায় দেখা গিয়েছে। তবে আমাজন আলেক্সার সাহায্যে অনলাইন শপিং—সত্যিই অভাবনীয়!

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   গুয়েতেমালায় একটি আখ ক্ষেত থেকে দুই সাংবাদিকের লাশ উদ্ধার

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

19 + eighteen =