এক শিল্পী। তিনি মাটির পুতুল তৈরি করেন। কোনও এক দিন বড় মূর্তি তৈরি করার স্বপ্ন দেখেন। এক অ্যাড ফিল্ম মেকার। এক দিকে মডেল, অন্য দিকে চায়ের দোকানে কাজ করা শিশু শ্রমিকদের নিয়ে একটা ছবি তৈরি করতে চান।

এক ঘোড়সওয়ার। মালিকের সঙ্গে কম্প্রোমাইজ করতে করতেই কাটিয়ে দেয় গোটা জীবন। এক মফস্বলের মেয়ে। অভিনয়ের স্বপ্ন নিয়ে কলকাতায় এসে সাহায্য পায় এক শহুরে ছেলের। আর সেই সাহায্য করতে গিয়েই ছেলেটির জীবন জোড়া কম্প্রোমাইজ।

এই গল্প নিয়ে  আগামী ২৪ নভেম্বর  মুক্তি পাচ্ছে  প্রণবেশ চন্দ্রের পরিচালনায়  ‘চারদিকের গল্প’। সেখানেই দেখা মিলবে এই চরিত্রদের।

চারটি গল্প— ‘শিল্পী’, ‘কম্প্রোমাইজ’, ‘ঘোড়সওয়ার’, ‘অভিনয়ের জন্য’কে একসঙ্গে ফ্রেমবন্দি করেছেন প্রণবেশ। জীবনে চলার পথে প্রত্যেক সম্পর্কেই কম্প্রোমাইজ খুব গুরুত্বপূর্ণ। সেই ভাবনা থেকেই গল্প লিখেছেন তিনি। চিত্রনাট্যও সাজিয়েছেন গল্পের দাবি মেনেই। ছবিতে দেখা যাবে একটা ট্রেন জার্নিতে এক সেলসম্যান এক অ্যাড ফিল্ম মেকারকে এই চারটি গল্প শোনাচ্ছেন। মুক্তির আগেই ১৬টি জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পুরস্কার জিতে নিয়েছে প্রণবেশের প্রথম ছবি।

সমদর্শী দত্ত, ইন্দ্রাশিস আচার্য, বিশ্বজিত্ চক্রবর্তী, অনিন্দ্য বন্দ্যোপাধ্যায়, সায়ন্তনী গুহ ঠাকুরতা— প্রমুখের অভিনয় সমৃদ্ধ করেছে এই ছবিকে। বিভিন্ন ছবির ভিড়ে এই ছবিটি কেন দেখবেন দর্শক? পরিচালক শেয়ার করলেন, চারটে গল্পকেই নিজেদের জীবনের সঙ্গে রিলেট করতে পারবেন দর্শক। আর এটা সকলকে নিয়ে দেখার মতো ছবি।

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   অভিনয় করবো কিন্তু পেশা হিসেবে রাখবো না: মিশা

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

one × three =