নিজের পরিচয় গোপন করে মুসলিম নাম (হাসান রুহানি) ধারণ করেই ফেসবুকে নিয়মিত ধর্মীয় উস্কানিমূলক মন্তব্য করে আসছিলেন সুজন কুমার (২৫)। সর্বশেষ ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাটকে ফেসবুকে হত্যার হুমকি দেয়ার পর ধরা পড়েন সুজন কুমার। রোববার কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিটের সদস্যরা তাকে নাটোর থেকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারের পর নিজের পরিচয় গোপন রেখে মুসলিম নাম হাসান রুহানি ধারণ করার কথা স্বীকারও করেছেন। এ ঘটনায় সোমবার সুজন কুমারের বিরুদ্ধে রমনা থানায় তথ্য ও যোগাযোগ-প্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারা ও দ-বিধির ৪৫৭ ধারায় মামলা হয়েছে। পুলিশ তাকে আদালতে হাজির করে চার দিন রিমান্ড চাইলে দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে বিচারক। মামলা বাদী সিটিটিসি’র এএসআই ইয়াসিন মিয়া গণমাধ্যমকে জানান, নিজের পরিচয় গোপন করে সুজন কুমার হাসান রুহানি নাম ধারণ করে ফেসবুক আইডি খুলে ধর্মীয় উসকানিমূলক মন্তব্য করে আসছিলেন। গত নভেম্বরে ওই অ্যাকাউন্ট খোলেন সুজন। গ্রেফতারকৃত সুজন কুমারের বাড়ি নাটোরের লালপুর উপজেলায়। মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, একটি গণমাধ্যমের ফেসবুক পেজে প্রকাশিত সংবাদে মন্তব্য করতে গিয়ে হাসান রুহানি নামের ফেসবুক আইডি থেকে সুজন কুমার মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাটকে হত্যার হুমকি দেন। এর বাইরে হাসান রুহানি নামের ওই আইডি থেকে অনেক আপত্তিকর ও উস্কানিমূলক মন্তব্যও করা হয়। সুজন গোয়েন্দা পুলিশের কাছে স্বীকার করেছেন, ফেসবুকে হাসান রুহানি নামে তার নিজের অ্যাকাউন্ট আছে। সুজন কুমারের মন্তব্য করা ২৫ পাতা স্ক্রিনশট জব্দ করা হয়েছে বলেও জানিয়েছে গোয়েন্দা সূত্র।

Comments

comments

আরও পড়ুনঃ   গণতন্ত্র মানে শুধু ব্যালট বাক্সে ভোট দেয়া নয়

একটি উত্তর লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

eleven + sixteen =